আপনার প্রকৃত বন্ধু কে, চিনবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
৭ আগস্ট ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ১২:০২

আপনার প্রকৃত বন্ধু কে, চিনবেন যেভাবে

বন্ধু মানেই একটি বৃন্তে জড়িয়ে থাকা কুসুমগুচ্ছ। বন্ধু মানেই সুখে-দুখে সমান্তরালে পথচলা। বন্ধু মানেই নিঃস্বার্থ বন্ধন। কিন্তু আসলেই কি তাই? আসলেই কি সবাই প্রকৃত বন্ধু? ‘সুসময়ে অনেকেই বন্ধু বটে হয়/ অসময়ে হায় হায় কেউ কারও নয়”- পরিচিত ও বহুল পঠিত এই ভাবসম্প্রসারণটির বাস্তবতা আমাদের চোখের চারপাশে। সুসময়ে যারা সাময়িক বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে দুঃসময়ে তারাই সবার আগে দূরে সরে যায়। 

কিন্তু জীবনে সঠিক পথে উন্নতির পথে এগোতে হলে প্রকৃত মানুষ চিনতে হবে। চিনতে হবে সত্যিকারের বন্ধুটিকেও। যেন শুধু সুসময়েই নয়, অসময়ে সবচেয়ে বেশি কাছে পাশে পাওয়া যায়- তেমন বন্ধুর সঙ্গে বুক মিলিয়ে আলিঙ্গন করতে হবে। 

মনোবিদেরাও স্বীকার করেন- মানুষের মন বোঝা সবচেয়ে কঠিন কাজ। কার ভেতরে কি আছে তা সরাসরি ধরতে পারা না গেলেও কিছু বিষয় দিয়ে ব্যক্তিকে মূল্যায়ন করা যায়। তেমনই প্রকৃত বন্ধু চেনার ৫টি টিপস পাঠকের জন্য তুলে ধরা হলো:  

১. বন্ধুদের মধ্যে ইয়ার্কি ফাজলামি থাকেই। কিন্তু প্রকৃত বন্ধু কখনও অন্যের সামনে আপনাকে ছোট করে কোনও কথা বলবে না। আপনার অপমান হয় এমন কিছু কখনও করবে না। 

২. ধরুন রেস্তোরাঁয় খেতে যাচ্ছেন কিংবা সিনেমা দেখতে যাচ্ছেন—এসময় সুদিনের বন্ধুরা কিন্তু পাশে বেশি বেশি ভিড় করে। কিন্তু প্রকৃত বন্ধুর এসবের প্রতি কৃত্রিম কোনও মোহ থাকে না। 

৩. কোনও একটি বিষয়ে আপনি দারুণভাবে সফল হয়েছেন। কিন্তু যদি দেখেন আপনার বন্ধুর মধ্যে উল্লাস উচ্ছ্বাস নেই- কিন্তু সে ঘাড় ঘুরিয়ে গাল ফোলাচ্ছে তখন বুঝতে হবে সে আপনার আসল বন্ধু নয়।

৪. প্রকৃত বন্ধু কখনও কারণে-অকারণে বন্ধুর ভুল ধরে না। কিন্তু সুসময়ের বন্ধুরা বন্ধুর ভাবনা-চিন্তা, মতামত সব কিছুর মধ্যেই কোনও না কোনও ভুল ধরতে ব্যস্ত থাকে। 

৫. বন্ধুর বিপদের সময় আপনি সামনে থেকে বন্ধুর হয়ে কথা বলছেন। তাকে বিপদমুক্ত করতে সবকিছু করছেন। কিন্তু যেদিন আপনার বিপদ সেদিন যদি সে অজুহাত দিয়ে দূরে সরে থাকে কিংবা গা-ছাড়া ভাব ধরে তবে মনে রাখতে হবে সে আপনার প্রকৃত বন্ধু নয়। 

ব্রেকিংনিউজ/এমআর