শেরপু‌রে ফের বন্য হাতির তাণ্ডব, জনমনে আতঙ্ক

আরমান হাসান
২৯ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৮:২০ আপডেট: ০৮:২৫

শেরপু‌রে ফের বন্য হাতির তাণ্ডব, জনমনে আতঙ্ক

শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজ‌েলায় বন্য হাতি ফের আবাদী জমিতে তাণ্ডব চালিয়েছে। এছাড়াও উপজেলার পানিহাটা কেকামারী এলাকায় বেশ কয়ক জন কৃষকের রোপন করা আমন ধান ক্ষেত খেয়ে ও পা দিয়ে মাড়িয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করেছে। 

স্থানীয়দের সূত্র জানা যায়, বুধবার (২৮ আগস্ট) গভীর রাতে বন্য হাতির একটি দল ভারত থেকে বাংলাদেশের সীমান্তে ঢুকে পড়ে। এ সময় পানি হাটা কেকামারী গ্রামের জহুর উদ্দিনের দশ কাঠা, শাহজাহানের দশ কাঠা, লাল মিয়ার ১২ কাঠা এবং আতিকুলের এক একর আমন ধান ক্ষেত বন্য হাতি দল নষ্ট করে ফেলে। 

এর আগে গত ১৩ আগস্ট রাতে উপজেলার বন্য হাতির দল আন্ধারুপাড়া এলাকায় এসে ধান ক্ষেতে নামে। এসময় গ্রামের মানুষ ঘুমে ও বৃষ্টি থাকায় হাতির পালকে তাড়াতে পারেননি। সুযোগ পেয়ে হাতির পাল সদ্য রোপিত আমন ধানের ক্ষেত খেয়ে ও পা দিয়ে মাড়িয়ে নষ্ট করে। এ সময় জর্জ মারাকের ১০ কাঠা, সিরাজুলের ১ একর, মেজেস মারাকের ১৮ কাঠা, জন মারাকের ১৬ কাঠা, ইন্তাজ আলীর ১ একর, সুমন মারাকের ১০ কাঠা, পন্ঠিত মারাকের ১ একর ৭ কাঠা, হাসু মিয়ার ১০ কাঠা ও মি. লুইস নেংমিনজার ১০ কাঠা জমির আমন ধানক্ষেত সহ প্রায় প্রায় ৮ একর আমন ধানের ক্ষেত বিনষ্ট করে হাতির পাল। 

এ ব্যাপা‌রে স্থানীয় যুবক শাহরিয়ার তানজিম ব‌লেন, 'আমার পাশের গ্রাম বারোমারি আন্দারো পারা পাহাড়ি এলাকায় প্রায় বুনো হাতির আক্রমণ ক‌রে। এ‌তে এলাকাবাসীর প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়। ওই এলাকায় সাধারণত উপজাতিরা বসবাস করে।  তাদের অল্প আবাদি ফসলের ওপর হাতির আক্রমণ তাদের জীবন-যাত্রায় বড় একটি অভিশাপ। পরবর্তীতে যাতে হাতি আর আক্রমণ করতে না পারে, এবং আবাদি ফসলের ক্ষতি করতে না পারে এই জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা উচিত।’

বর্তমান বন্য হাতির দলটি ভারত-বাংলাদেশের সীমান্তের শূন্য রেখায় অবস্থান করছে। ফের রাতে হাতি ফসলি জমিতে আক্রমন করতে পারে, এমন আতঙ্ক কাজ করছে জনমনে।

ব্রেকিংনিউজ/এএইচ/জেআই