মিডিয়া মালিকদের ঋণের হিসাব চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৪ জুন ২০১৯, শুক্রবার
প্রকাশিত: ০৬:৩৯ আপডেট: ০৮:০০

মিডিয়া মালিকদের ঋণের হিসাব চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

১০ বছরেও সরকার খেলাপি ঋণের প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পত্রিকা ও টিভি মালিকদেরই দুষলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি মিডিয়া মালিকরা কে কত টাকা ঋণ নিয়ে কত টাকা পরিশোধ করেছেন, সে হিসাব দিতে বলেছেন।

শুক্রবার (১৪ জুন) বিকেলে আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

২০০৯ সালে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ২৩ হাজার কোটি টাকা, যা সর্বশেষ ১ লাখ ১১ হাজার কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এই হিসাব তুলে ধরে একজন সাংবাদিক প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চান, সরকার সব ক্ষেত্রে সফল হলেও খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণে সফল হতে পারছে না কেন?

এ প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘খবর নেবেন, পত্রিকার মালিকরা কে কোন ব্যাংক থেকে কত টাকা ঋণ নিয়েছেন। সব ব্যাংক থেকে এই তথ্য বের করেন। যত মিডিয়া আছে, প্রত্যেকে বলবেন, কোন মালিক কোন ব্যাংকের কত টাকা ঋণ নিয়ে কত টাকা শোধ দেননি। খেলাপি হয়ে নিজেরা হিসাব করলে আমাকে আর প্রশ্ন করতে হবে না।’

পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মালিকদের এই খেলাপি ঋণের হিসাব নিয়ে তবেই যেন পত্রপত্রিকায় এ বিষয়ে লেখা হয়, সেই আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

বেশি বেশি ঋণ খেলাপি হওয়ার কারণ তুলে ধরে খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণেও ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে সুদের হার অনেক বেশি। ব্যাংকগুলোতে চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ হয়। আবার খেলাপি ঋণের হিসাব যখন দেয়া হয়, চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ যোগ হয়ে যে ঋণের পরিমাণটা দাঁড়ায়, সেই হিসাব প্রকাশ করা হয়। ফলে খেলাপি ঋণের পরিমাণ অনেক বেশি দেখায়। প্রকৃত ঋণ আসলে অতটা নয়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘চক্রবৃদ্ধি হারে সুদসহ খেলাপি ঋণ ধরা হয়। এ ক্ষেত্রে আমাদের কিছু দুর্বলতা আছে। ধীরে ধীরে বিষয়গুলো অ্যাডজাস্ট করা হচ্ছে। আমরাও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি। আর আমরা আগেও বলেছি, খেলাপি হয়ে যাওয়া ঋণও শোধ দেওয়ার সুযোগ দেবো। সেই প্রক্রিয়া চলছে।’

ব্রেকিংনিউজ/ আরএইচ/ এসএ