আপাতত পিএসসি পরীক্ষা বন্ধ হচ্ছে না: গণশিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৮:৩৬

আপাতত পিএসসি পরীক্ষা বন্ধ হচ্ছে না: গণশিক্ষামন্ত্রী

কোমলমতি শিশুদের উপর অসহনীয় মানসিক চাপ দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, ‘২০০৯ সাল থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু হয়। এখন পর্যন্ত অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে ও স্বচ্ছতার সঙ্গে পিএসসি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। তাই এ পরীক্ষা আপাতত বন্ধ করার কোনো পরিকল্পনা নেই।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) জাতীয় সংসদে ঢাকা-২০ আসনের সাংসদ বেনজীর আহমেদের প্রশ্নের লিখিত জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষাকে অধিকতর যুগোপযোগী করে আয়োজনের লক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের  অধীন একটি বোর্ড গঠনের বিষয় চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির (পিইডিপি ৪) ডিপিপিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ৫ বছর মেয়াদী উন্নয়ন কর্মসূচির ডিপিপি মোতাবেক তৃতীয় বছরে  অর্থাৎ ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে তা বাস্তবায়নের পরিকল্পনা রয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার প্রাথমিক শিক্ষাকে ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। এসব পদক্ষেপের মধ্যে প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক প্রাথমিক শ্রেণি চালু করে শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে ও অধিকতর যোগ্যতা সম্পন্ন শিক্ষক নিয়োগ প্রদানের লক্ষ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা ২০১৯’ জারি করা হয়েছে।

বেগম খোদেজা নাসরিন আক্তার হোসেনের প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে শিশুদের শিক্ষাজীবন থেকে ঝড়েপড়া রোধে স্কুল বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ দৃষ্টিনন্দন করা হয়েছে। পড়ার উপযোগী পরিবেশ আরো আকর্ষণীয় করে শিশুদের বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে মন্ত্রণালয় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে নতুন করে বিদ্যালয় স্থাপন  করার জন্য সারা দেশে ১০০০টি নতুন বিদ্যালয় স্থাপনের কার্যক্রম নেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ