সেই ডিসির উদাহরণ সৃষ্টির মতো শাস্তি হবে: প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৫ আগস্ট ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০৪:১৬ আপডেট: ০৪:১৮

সেই ডিসির উদাহরণ সৃষ্টির মতো শাস্তি হবে: প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণা

অফিসের নারী কর্মচারীর সঙ্গে যৌনতার ভিডিও ফাঁস হওয়া জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের (বর্তমানে ওএসডি) উদাহরণ সৃষ্টির মতো শাস্তি হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

রবিবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘জামারপুরের ডিসি অনৈতিক কাজ করেছে। প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অধিকতর তদন্তের ভিত্তিতে পরবর্তী সময়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি যে নারীর নাম এসেছে তাকেও তদন্তের আওতায় আনা হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘অবশ্যই উদাহরণ সৃষ্টি করার মতো পানিশমেন্ট তার (আহমেদ কবীর) হবে। আমাদের চাকরির বিধানে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ রয়ে গেছে। সেটিই হবে। আমরা খুব দ্রুত একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারব।’

এ ক্ষেত্রে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে তদন্ত কমিটি করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, ‘একজন ডিসি অনুকরণীয় জেলায়। তার কাছ থেকে এরকম অনৈতিক কর্মকাণ্ড কাম্য না। তার বিরুদ্ধে তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমুলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাকে এর আগে শুদ্ধাচার পদক দেওয়া হয়েছিল। সেটা ফিরিয়ে নেব।’

আহমেদ কবীর শুদ্ধাচার সার্টিফিকেট পেয়েছেন, সেটা প্রত্যাহার করা হবে কিনা- জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘অবশ্যই সেটি প্রত্যাহার করা হবে।’

এর আগে রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার পর আহমেদ কবীরকে ওএসডি করে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। একই সঙ্গে আরেকটি প্রজ্ঞাপনে জামালপুরে নতুন ডিসি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব (পিএস) মোহাম্মদ এনামুল হক।

সম্প্রতি জামালপুরের ডিসির একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ২৪ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের ভিডিওতে জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরকে তার নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা গেছে। ভিডিও দুটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ