ডিসির সঙ্গে সাধনার বিয়ে, পরিবার বলছে ‘ভুয়া ভিত্তিহীন’!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৮ আগস্ট ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ১০:৩৬ আপডেট: ০১:৪৯

ডিসির সঙ্গে সাধনার বিয়ে, পরিবার বলছে ‘ভুয়া ভিত্তিহীন’!

ক’দিন আগেই জামালপুরের সাবেক জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন আহমেদন কবীর। এরইমধ্যে চাকরি বাঁচাতে সাধনাকে তিনি বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও গুঞ্জন উঠেছে। 

তবে সাধনাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত কিংবা প্রস্তাব দেয়া নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে যেসব সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সেগুলোকে ‘ভুয়া ও ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করছে সাধনার পরিবার। 

গতকাল মঙ্গলবার একাধিক সংবাদমাধ্যমে আহমেদ কবীর ও সাধনার বিয়ে সংক্রান্ত খবর ছড়িয়ে পড়ে। তার কয়েকদিন আগে থেকেই হঠাৎ গা ঢাকা দেন সাধনা। 

এ বিষয়ে জানতে সাধনার মুঠোফোনে বহুবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। 

এরপর তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ডিসির সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জন নিয়ে সাধনার মা বলেন, ‘এ ধরনের গুঞ্জনে আমার মেয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে। ও এখন মিডিয়ার সামনে আসতে চাচ্ছে না। আপনারা ওকে এখন ডিস্টার্ব করবেন না, প্লিজ।’

আহমেদ কবীরের সঙ্গে মেয়ের বিয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ডিসি কিংবা তার পরিবারের পক্ষ থেকে কখনোই আমার মেয়ের জন্য এ ধরনের কোনও প্রস্তাব দেয়া হয়নি। দেয়া হলেও আমরা প্রত্যাখ্যান করতাম। ডিসির সঙ্গে আমার মেয়ের বিয়ে কোনোভাবেই সম্ভব নয়। কারণ ডিসির  নিজের একটা পরিবার আছে। আর আমার মেয়েরও সন্তান আছে।’

এদিকে ডিসির সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হওয়া নিয়ে সাধনা দুদিন আগেই গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমাকে কেউ কথা শিখিয়ে দেয়নি। স্যারের (আহমেদ কবীর) কোনও দোষ নেই। আমার সন্তানকে বাঁচতে দিন। আমার সন্তানের জন্য আমি বাঁচতে চাই। যারা এ ধরনের একটি মিথ্যে বানোয়াট ভিডিও প্রকাশ করেছে আমি তাদের বিচার চাই।’

উল্লেখ্য, গত ১৫ আগস্ট বিকেলে ‘খন্দকার সোহেল আহমেদ’ নামের একটি আইডি থেকে জামালপুরের ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে সাধনার আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশ হলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়। এ ঘটনায় ডিসি আহমেদ কবীরকে ওএসডি করা হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর