মেয়ে একটাই, বাবা দাবি করছেন তিনজন!

রকমারি ডেস্ক
২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৪:৪২ আপডেট: ০১:০৮

মেয়ে একটাই, বাবা দাবি করছেন তিনজন!
ফাইল ছবি

সদ্যজাত শিশুকে ফেলে যাওয়ার ঘটনা মাঝে মাঝেই ঘটে। এসব শিশুদের মা-বাবাকে খুঁজে বের করা হয় না পেলে সরকারি ব্যবস্থাপনায় দত্তকও দেয়া হয়। তবে এবার এক মেয়ের জন্য তিন তিনজন পুরুষ নিজেদেরকে বাবা হিসেবে দাবি করছেন! 

বাবা হওয়ার এ দৌড় প্রতিযোগিতা হচ্ছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। 

ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যম জানায়, গত শনিবার (২০ জুলাই) স্বপ্না মিত্র নামের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে দক্ষিণ কলকাতার গাঙ্গুলিবাগানের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দীপঙ্কর পাল নামের এক ব্যক্তি নিজেকে স্বপ্নার স্বামী পরিচয় দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের ফাইল-পত্রে দীপঙ্করকেই স্বপ্নার স্বামী হিসেবে লেখা হয়।

রবিবার (২১ জুলাই) অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে একটি কন্যাসন্তানের জন্ম দেন স্বপ্না। এরপরেই শুরু হয় ঝামেলা। 

নতুন বাচ্চার জন্ম দিয়ে স্বপ্না হোয়াটসঅ্যাপে বাচ্চার ছবি দেন। তা দেখে হাসপাতালে এসে হাজির হন হর্ষ ক্ষেত্রী নামের এক ব্যক্তি। তিনি দাবী করেন, স্বপ্না তার স্ত্রী এবং সদ্যজাত শিশু তার মেয়ে! তিনি স্বপ্নার সঙ্গে তার বিবাহ রেজিস্ট্রিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দেখান। 

এবার স্বপ্নার পাশাপাশি হাসপাতাল কতৃপক্ষও চিন্তায় পড়ে যায়। তারা স্বপ্নার কেবিনে নিরাপত্তা বাড়ানোর পাশাপাশি পুলিশকে খবর দেয়। 

ঘটনা এখানেই থেমে থাকেনি। সোমবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যায় সদ্যজাত এ শিশুর পিতৃত্বের দাবি করে হাসপাতালে আসেন প্রদীপ রায় নামের আরেক জন! তিনি দাবি করেন, স্বপ্নার সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্ক হতো এবং তিনি তার প্রমাণও দিতে চান!

কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, অস্ত্রোপচারের পর স্বপ্না চিকিৎসকদের নিবিড় পরিচর্যায় রয়েছে। তিনি সুস্থ হয়ে উঠলেই আসলেই শিশুটির বাবা কে তা জানা যাবে।  

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

bnbd-ads