bnbd-ads
bnbd-ads

এক জায়গায় দাঁড়িয়ে আন্দোলন-সংগ্রামের হুঙ্কার তুলুন: দুদু

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
২৩ এপ্রিল ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৬:৫৬ আপডেট: ০৬:৫৯

এক জায়গায় দাঁড়িয়ে আন্দোলন-সংগ্রামের হুঙ্কার তুলুন: দুদু
ছবি: সালেকুজ্জামান রাজীব

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সারা দেশের জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নেতাদের এক জায়গায় দাঁড়িয়ে আন্দোলন-সংগ্রামের হুঙ্কার তোলার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু।

ছাত্রদল নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছেন, ‘আসুন আজ আমরা একটি জায়গায় দাঁড়াই। সে জায়গাটা হচ্ছে শহীদ জিয়া, বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমান আর কাজী আসাদুজ্জামানের স্বপ্নের জায়গা। সেই স্বপ্ন হচ্ছে বাংলাদেশের গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার স্বপ্ন।’

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে ছাত্রদলের সাবেক নেতৃবৃন্দের উদ্যোগে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আসাদুজ্জামান এর স্মরণ সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

আসাদুজ্জামান এর স্মৃতিচারণ করে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘তিনি কিন্তু বগুড়ার লোক ছিলেন না। তিনি গোপালগঞ্জের লোক ছিলেন। তিনি মূলধারার রাজনীতি না করলেও তিনি কিন্তু ছাত্রলীগের রাজনীতির ধারা থেকে এসেছেন। তার সম্পর্কে যদি বলি তাহলে আপনারা অবাক হবেন। সেই সময়ে ছাত্রলীগের ও ছাত্র ইউনিয়নের বাইরে গিয়ে ছাত্রদলের কর্ণধার হয়েছিলেন তিনি। আমৃত্যু নিজেকে যোগ্য নেতা হিসেবে প্রমাণ করে গেছেন।’

দেশের বর্তমান ছাত্র রাজনীতির প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘এখন যেমন ছাত্রদলের বিভিন্ন গ্রুপ আছে সে সময়ও গ্রুপ ছিল। আসাদুজ্জামান সকল গ্রুপকে একত্রিত করে ছাত্রলীগের মুখোমুখি হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘ডাকসুতে সেই সময়ে ছাত্রদলের জয়জয়কার ছিল। এই ছাত্রদলের নেতৃত্বেই স্বৈরশাসক এরশাদের পতন হয়েছিল।’

ছাত্রদ‌লের সা‌বেক এ সভাপ‌তি বলেন, ‘জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল বাংলাদেশের একটি মূলধারার ছাত্র সংগঠন। কাজী আসাদুজ্জামানের এই ছাত্রদল যারা করেন আমি মনে করি তারা গণতন্ত্রের জন্য অকাতরে জীবন দিতে পারেন এবং দিয়েছেনও। গণতন্ত্রের জন্য যদি ছাত্রদলকে আবার উঠে দাঁড়াতে হয় তাহলে কাজী আসাদুজ্জামানের আদর্শকে ধরে রাখতে হবে। তাঁকে স্মরণ করতে হবে। তাহলেই আমাদের নেত্রীকে, গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে পারবো।’

দুদু বলেন, ‘কাজী আসাদুজ্জামান গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় কোনও আপস করেননি, আমাদেরও করা উচিত নয়।’

স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমানুল্লাহ আমান, হাবিবুর রহমান হাবিব ও যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ

ব্রেকিংনিউজ/এএইচএস/এমআর