বন্দর নগর যেন মিছিলের নগরী, রূপ নিয়েছে মহাসমাবেশ’র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার
প্রকাশিত: ০৫:১২ আপডেট: ০৭:২৭

বন্দর নগর যেন মিছিলের নগরী, রূপ নিয়েছে মহাসমাবেশ’র
ছবি: ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

বরিশালের পর বন্দর নগর চট্টগ্রামে চলছে বিএনপি বিভাগীয় সমাবেশ চলছে। সমাবেশটি ইতোমধ্যেই মহাসমাবেশে রূপ নিয়েছে। কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে আশাপাশের বহুদূর পর্যন্ত ছেয়ে গেছে সমাবেশের পরিধি। বরিশালের মতো অনেকদিন পর রাজপথের এই কর্মসূচিতে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের ঢল নেমেছে। 



কারাবন্দি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এই সমাবেশে ৮০-৯০ বছরের বৃদ্ধারও এসেছেন। নেতাকর্মীদের মাঝে উচ্ছ্বাস চোখে পড়ার মতো।



‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’, ‘আমার নেত্রী আমার মা, বন্দী থাকতে দেবো না’, ‘আমার মা জেলে কেন’, ‘লড়াই লড়াই লড়াই চাই লড়াই করে বাঁচতে চাই’, ‘বন্দি আছে আমার মা, ঘরে ফিরে যাবো না’, ‘হামলা করে আন্দোলন- বন্ধ করা যাবে না’- ইত্যাদি স্লোগানে দিচ্ছেন।



শনিবার (২০ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে চট্টগ্রামে বিএনপির দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে এই সমাবেশ শুরু হয়। বিএনপির পক্ষ থেকে নগরের লালদীঘি মাঠ সংলগ্ন জেলা পরিষদ চত্বর কিংবা কাজীর দেউড়ি মোড়ে সমাবেশ করতে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু সমাবেশের মাত্র ২১ ঘণ্টা আগে ২৭ শর্তে দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কের একপাশে সমাবেশের অনুমতি মেলে।



নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমেদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, মোহাম্মদ শাজাহান, বরকতউল্লাহ বুলু প্রমুখ উপস্থিত রয়েছেন।



নানা বাধা উপেক্ষা করে নেতাকর্মীরা বিভিন্ন ব্যানার, ফেস্টুন, প্লেকার্ড নিয়ে চট্টগ্রামের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও থানায় থেকে বিএনপি ও তাদের অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বাস, ট্রাক, পিকআপসহ ছোট বড় বিভিন্ন পরিবহনে আসছেন। 

ব্রেকিংনিউজ/ এএইচএ/ এসএ