কাশ্মির ইস্যুতে সর্বদলীয় বৈঠক, কাশ্মিরীদের পাশে থাকার ঘোষণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১১ আগস্ট ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ১২:৪০

কাশ্মির ইস্যুতে সর্বদলীয় বৈঠক, কাশ্মিরীদের পাশে থাকার ঘোষণা

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মিরের পরিস্থিতি নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক করেছে ধর্মভিত্তিক ও সমমনার কিছু রাজনৈতিক দল। বৈঠকে কাশ্মীরি জনগণের আন্দোলনের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করা হয় এবং বাংলাদেশের জনগণ কাশ্মিরী মজলুম মানুষের পাশে থাকবে বলে ঘোষণা দেয়া হয়।

শনিবার (১০ আগস্ট) পুরানা পল্টনস্থ জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন দলের মহাসচিব দেশের শীর্ষ আলেম আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী।

জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীনের পরিচালনায় বৈঠকে স্বাগত বক্তৃতা করেন, জমিয়ত সহ-সভাপতি মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী।

বৈঠকে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অবঃ) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম (বীরপ্রতীক), ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমির ড. মাওলানা ঈসা শাহেদী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক. জমিয়তের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মনজুরুল ইসলাম আফেন্দী, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মাওলানা আবদুল করীম, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ন্যাশন্যাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ- ভাসানী) চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আজহারুল ইসলাম, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, ঢাকা মহানগর যুগ্মসচিব মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী, এনডিপির চেয়ারম্যান কারী আবু তাহের, বাংলাদেশ পিপলস লীগের মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মাহমবুব হোসেন, মাওলানা মুস্তফা তারেকুল হাসান, মাওলানা আবদুল গফ্ফার ছয়ঘরী প্রমূখ।

বৈঠকে আগামী শুক্রবার সারা দেশে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয় এবং আসন্ন ঈদুল আজহা ও জুমআর বয়ানে কাশ্মীরী জনগণের পক্ষে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও দোয়া করার জন্য খতিবদের প্রতি আহবান জানানো হয়।
 
বৈঠকে নেতৃবৃন্দ ভারতের অধিকৃত জম্মু কাশ্মিরের বর্তমান পরিস্থতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ব্রিটিশ ঔপনিবেশ থেকে স্বাধীনতাপরবর্তী ১৯৪৭ সালে ভারত যখন বিভক্ত হয়, তখন জাতিসংঘ সনদ অনুযায়ী কাশ্মীরের জনগনকে গণভোটের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহনের যে অধিকার দেয়া হয়েছে, বর্তমান হিন্দুত্ববাদী উগ্র সন্ত্রাসবাদী বিজেপি সরকার তা বাতিল করে কাশ্মিরের জনগণের রক্ত নিয়ে হোলি খেলায় মেতে উঠেছে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ভারত বিগত ৬৯ বছর ধরে জাতিসংঘ সনদ উপেক্ষা করে সেখানে গণভোট দেয়নি। এ দীর্ঘ সময় ধরে ভারত কাশ্মিরীদের উপর দমন-পীড়ন চালিয়ে আসছে। হত্যা, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও নারী ধর্ষণের মতো জঘন্যতম বর্বরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ