রংপুর উপ-নির্বাচনে জাপার এমপি প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে ক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৩:৪৪

রংপুর উপ-নির্বাচনে জাপার এমপি প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে ক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা

জাতীয় সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেতা পদ নিয়ে প্রয়াত এরশাদ পত্নী রওশন এরশাদ ও এরশাদের ছোট ভাই গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের মধ্যে দৃশ্যমান সমঝোতা হলেও উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে জাতীয় পার্টির ঘাটি খ্যাত রংপুরে।

বিশেষ করে রংপুর সদর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে এমপি প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

তৃণমুলের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, যে ব্যক্তি পার্টি অফিসে মনোনয়নপত্রই জমা দেননি এমনকি মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষাৎকার দেননি তাকেই মনোনয়ন দেয়া হলো।
 
রংপুরের স্থানীয় নেতাকর্মীরা আরো জানান, সাদ এরশাদকে রংপুরের মানুষ চেনে না। তাকে কোনো দিনই দেখেনি। তার নামও শুনেনি। জাতীয় পার্টির দুর্দিনে তার কোনো ভূমিকা ছিলো না। তাছাড়া রংপুরের উন্নয়নে তার কোনো অবদানই নেই। তাকে কিভাবে প্রার্থী করা হলো বিষয়টি বুঝে আসছে না। আমরা স্থানীয়ভাবে প্রার্থী দেয়ার আবেদন জানালেও কেন্দ্র তা গ্রহণ না করে মনগড়াভাবে প্রার্থী দিয়েছে। যা ঠিক করেনি। এর ফল নির্বাচনে ব্যালটের মাধ্যমে পাবে।

এব্যাপারে জাপার কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও রংপুর মহানগর সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির বলেন, পার্টির বর্তমান চেয়াম্যান জি এম কাদের যদি নিজের অবস্থান শক্ত করতে না পারেন, অবস্থান পরিষ্কার করতে না পারেন তাহলে দল শক্তিশালী করা তার পক্ষে কঠিন হবে। আমাকে মনোনয়ন বোর্ড সিলেক্ট করে পরে আবার সাদকে মনোনয়ন দেয়া হলো। রংপুরের তৃণমূল নেতাকর্মীরা আমাকে সমর্থন করেছেন। মনোনয়ন পরিবর্তন করে শুধু আমাকেই নয় রংপুরবাসীকেও অপমান করা হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি