দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত

প্রবাস ডেস্ক
২৭ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৯:১৫

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই বাংলাদেশি ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। চাঁদা না দেয়ায় শরীয়তপুরের ওই দুই ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

নিহতরা হলেন-শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিসার ইউনিয়নের কাইছকড়ি গ্রামের মৃত শহর আলী মাঝির ছেলে উজ্জল মাঝি (৩১) ও নড়িয়া উপজেলার কাপাশপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম মোল্যার ছেলে আলম মোল্যা (৩৫)।

নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, বেশ কয়েক দিন ধরে সেখানের সন্ত্রাসীরা উজ্জল ও আলম মোল্যার কাছে চাঁদা দাবী করছিল। চাঁদা না দেয়ায় তাদেরকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করেছে। নিহতদের স্বজনরা দ্রুত তাদের মরদেহ ফিরে পেতে সরকারের কাছে দাবী জানিয়েছেন।

নিহতদের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উজ্জল মাঝি দীর্ঘ ১১ বছর যাবত দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকেন। সেখানে ক্যাপটাউন শহরে একটি মুদি দোকান দিয়ে ব্যবসা করতেন। উজ্জল ৫ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে সবার ছোট। ১১ বছরের মধ্যে বৈধ কাগজ না থাকায় সে বাড়ি আসতে পারেনি। মাত্র দেড়মাস পূর্বে টেলিফোনের মাধ্যমে শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার সিড্যা গ্রামের ফারুক বেপারীর মেয়ে ফারজানা আকতার সুরভীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়। দেশে ফিরে আনুষ্ঠানিকভাবে সুরভীকে তুলে আনার কথা ছিল। 

উজ্জল রবিবার (২৫ আগস্ট) দক্ষিণ আফ্রিকার সময় রাত আনুমানিক সাড়ে ৭টা ও বাংলাদেশি সময় রাত সাড়ে ১১টায় তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজ করছিল। এমন সময় সন্ত্রাসীরা এসে চাঁদা না পেয়ে তাকে পর পর দুটি গুলি করে। এতে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

এ সময় উজ্জলের দোকান কর্মচারী একই জেলার নড়িয়া উপজেলার বিঝারী ইউনিয়নের কাপাশপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম মোল্যার ছেলে দু’সন্তানের জনক আলম মোল্যা বাসায় রান্না করছিলেন। সন্ত্রাসীরা বাসায় ঢুকে আলম মোল্যাকেও মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যা করে। আলম মোল্যা দেড় বছর আগে জমি বিক্রি করে দক্ষিণ আফ্রিকায় যায়। সে তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী ছিলেন। তার মা নেই। বৃদ্ধ বাবা প্যারালাইজড হয়ে ঘরে পড়ে আছেন।

নিহত আলম মোল্যার স্ত্রী রুমাসহ আফসা নামের ৪ বছরের এক মেয়ে ও হানিফ নামে আড়াই বছরের এক ছেলে রয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকা স্বজনদের মাধ্যমে এ সংবাদ শোনার পর উভয় পরিবার ও তাদের স্বজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

ব্রেকিংনিউজ/এসএসআর