রাজশাহীতে বিএনপির মহাসমাবেশ জন-সমুদ্রে পরিণত হবে: মিনু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রাজশাহী
২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ আপডেট: ১০:৪০

রাজশাহীতে বিএনপির মহাসমাবেশ জন-সমুদ্রে পরিণত হবে: মিনু

আগামী ২৯ জুলাই দুপুর ২টায় রাজশাহী বিভাগীয় মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। রবিবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যায় বেগম খালেদা জিয়া’র কারামুক্তি ও বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের অবৈধ রায় ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজশাহী বিভাগীয় মহাসমাবেশ উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক মতবিনিময় সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। 

সাংবাদিকদের সাথে সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু এই ঘোষণা দেন। 

তিনি বলেন, ‘রাজশাহী থেকে অতীতে সকল আন্দোলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনও রাজশাহীর বিভাগীয় সমাবেশ থেকে শুরু করা হবে।’

মিনু বলেন, ‘রাজশাহীর মানুষ মাথা পিছনে করে রাখেনা। সর্বদা তারা সামনের দিকে এগিয়ে যায়। সামনের দিকে এগুতে সকল প্রকার বাধা অতিক্রম করে মহাসমাবেশকে ইতিহাসের পাতায় লেখার মত করা হবে। সমাবেশ স্থলকে জনসমুদ্রে পরিণত করা হবে। কোন বাধাই বিএনপি’র এই মহাসমাবেশ রুখে দিতে পারবেনা। মানুষ এখন আর এই সরকারকে চায়না। জোর করে ভয়ভীতি ও হামলা মামাল দিয়ে জনগণকে জিম্মি করে রেখেছে। দেশে এখন কোন প্রকার গণতন্ত্র নাই।’ 

তিনি বলেন, ‘দেশের এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্যই এই সমাবেশ। বেগম জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা ও একনায়কতন্ত্র কায়েমকারী ও বাকশালীদের নিকট থেকে দেশকে রক্ষা করতে মহাসমাবেশে জনতার ঢল নামবে বলে আশা করেন মিনু।’ 
 
বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগীয় যুগ্ম সম্পাদক এ্যাডভোকেট সৈয়দ শাহীন শওকতের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু ও হাবিবুর রহমান হাবিব। বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনবার্সন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমটির সদস্য নাদিম মোস্তফা, সাইফুল ইসলাম মার্সাল, রাজশাহী জেলা কমিটির আহ্বায়ক আবু সাইদ চাঁদ, জেলা বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মতিউর রহমান মন্টু।

আরও উপস্থিত ছিলেন চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম, নাটোর জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক হাজী আমিনুল হক, আহ্বায়ক হাফিজুর রহমান, জয়পুরহাট জেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল গফুর মন্ডল, বগুড়া জেলার যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ জেলার যুগ্ম আহ্বায়ক সাইদুর রহমান বাচ্চু। 

এছাড়াও মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিউল হক রানা, জেলা বিএনপি’র সদস্য ও তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান,  মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম সুইট, জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হাসনাইন হিকোল, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল আলম সমাপ্ত। 

আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাকীর হোসেন রিমন, সাধারণ সম্পাদক আবেদুর রেজা রিপন, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রেজাউল করিম টুটুল, মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনি ও সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম কুসুমসহ বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।   

ব্রেকিংনিউজ/এসডিএম/জেআই