নাটোরে আনসার সদস্য সহ দুইজনের লাশ উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ০১:২১ আপডেট: ০২:১৯

নাটোরে আনসার সদস্য সহ দুইজনের লাশ উদ্ধার

নাটোরের লালপুর থেকে সাবিনা ইয়াসমিন নামে এক আনছার সদস্য ও বাগাতিপাড়া থেকে রেহেনা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৯ অক্টোবর) সকালে বড়াল নদীর দুই পাড়ে পৃথক স্থান থেকে মরদেহ দুইটি উদ্ধার করা হয়। 

নিহত আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন লালপুর উপজেলার চংধুপইল বাজার এলাকার শাহিন হোসেনের স্ত্রী এবং রেহেনা বেগম বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রামের সাফাতুল্লাহ’র স্ত্রী । 

লালপুর থানার উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন পুজার ডিউটি শেষে রাতে বাসায় ফিরে। সকালে ঘরে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্বজনরা পুলিশে খবর দেয়। প্রাথমিকভাবে তার শরীরে বিষক্রিয়ার আলামত মিলেছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

অপরদিকে বাগাতিপাড়া থানার ওসি আব্দুল মতিন জানান, স্থানীয়দের খবর পেয়ে উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রাম থেকে রেহেনা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে রেহেনা বেগমকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত করছে পুলিশ।

নাটোরে নারী সহ দুইজনের লাশ উদ্ধার 


নাটোরের লালপুর থেকে সাবিনা ইয়াসমিন নামে এক আনছার সদস্য ও বাগাতিপাড়া থেকে রেহেনা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৯ অক্টোবর) সকালে বড়াল নদীর দুই পাড়ে পৃথক স্থান থেকে মরদেহ দুইটি উদ্ধার করা হয়। 

নিহত আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন লালপুর উপজেলার চংধুপইল বাজার এলাকার শাহিন হোসেনের স্ত্রী এবং রেহেনা বেগম বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রামের সাফাতুল্লাহ’র স্ত্রী । 

লালপুর থানার উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম জানান, আনছার সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন পুজার ডিউটি শেষে রাতে বাসায় ফিরে। সকালে ঘরে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্বজনরা পুলিশে খবর দেয়। প্রাথমিকভাবে তার শরীরে বিষক্রিয়ার আলামত মিলেছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

অপরদিকে বাগাতিপাড়া থানার ওসি আব্দুল মতিন জানান, স্থানীয়দের খবর পেয়ে উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রাম থেকে রেহেনা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে রেহেনা বেগমকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত করছে পুলিশ।

ব্রেকিংনিউজ/এম