পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন

ধর্ম ডেস্ক
১৪ আগস্ট ২০১৯, বুধবার
প্রকাশিত: ১২:৩০

পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন

মক্কায় পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছেন হাজিরা। এবার হজ পালনে সৌদি সরকারের অনুমতি নেই, এমন ৫০ হাজারের বেশি হাজিকে সনাক্ত করেছে কর্তৃপক্ষ।

হজের শেষ দিন মিনায় জামারায় শয়তানকে উদ্দেশ্যে করে পাথর নিক্ষেপ শেষে তাবু ছাড়ছেন হাজিরা। মক্কা এবং মদিনার সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে ১৭ আগস্ট থেকে ফিরতি হজ ফ্লাইট শুরু হবে বাংলাদেশি হাজিদের। হজের শেষ ফ্লাইট ১৫ সেপ্টেম্বর। 

পাঁচদিন ধরে নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে পালিত হয় হজ। প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলমানের জন্য জীবনে একবার হজ করা বাধ্যতামূলক। হজের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হচ্ছে আরাফাত ময়দানে অংশগ্রহণ।গত ৯ আগস্ট (শুক্রবার) মিনায় রাত্রি যাপনের পর শনিবার (১০ আগস্ট) সকাল থেকেই আরাফাত ময়দানে জড়ো হতে শুরু করেন মুসল্লিরা। মিনা থেকে ১০ কিলোমিটার হেঁটে এখানে যেতে হয়। হাজিরা নামিরা মসজিদ থেকে দেওয়া খুতবা শোনার পর জোহর ও আসরের নামাজ একইসঙ্গে সংক্ষিপ্তভাবে আদায় করেন। তারপর হজ কবুল হওয়ার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া ও কোরান তেলওয়াতের মাধ্যমে সূর্যাস্তের অপেক্ষা করেন। সূর্যাস্তের পর হাজিরা মাগরিবের নামাজ আদায় না করেই আরাফাতের ময়দান থেকে রওনা দেন মুজদালিফার দিকে। সেখানে পৌঁছে মাগরিব ও এশার নামাজ একসঙ্গে আদায় করেন। খোলা আকাশের নিচে রাত যাপন করেন হাজিরা। তারপর মিনার জামারায় (প্রতীকী) শয়তানকে নিক্ষেপের জন্য পাথর সংগ্রহ করেন।  মঙ্গলবার ওই পাথর নিক্ষেপের মধ্য দিয়ে হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে।

সুষ্ঠু ভাবে হজ সম্পন্ন হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে বেসরকারি হজ সংগঠন হাব। অন্যদিকে হাজিদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনতে যৌথভাবে কাজ করছে ধর্ম ও বিমান মন্ত্রণালয়। 

ব্রেকিংনিউজ/অমৃ