গ্রামীণফোন-রবির ব্যান্ডউইথ কমালো সরকার

প্রযুক্তি ডেস্ক
৪ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৬:৫৭ আপডেট: ০৭:২৭

গ্রামীণফোন-রবির ব্যান্ডউইথ কমালো সরকার

বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করায় গ্রামীণফোন ও রবির ব্যান্ডউইথ ক্যাপাসিটি আংশিকভাবে কমিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। শীর্ষ এই দুই মোবাইল ফোন অপারেটরের ব্যান্ডউইথ ব্লকের ফলে গ্রাহকরা কল ড্রপ ও ইন্টারনেট সেবায় ধীরগতির সমস্যার মুখে পড়বেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন।

তিনি জানান, বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করা পর্যন্ত গ্রামীণফোনের ৩০ শতাংশ ও রবির ১৫ শতাংশ ব্যান্ডউইথ ব্লক করে রাখা হবে। সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া এই নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হাতে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের ব্যান্ডউইথ আংশিক ব্লক করে দেয়া হবে।

এর ফলে গ্রাহকরা যে সমস্যায় পড়বেন সে সম্পর্কে তিনি বলেন, ব্যান্ডউইথ ব্লক করা হলে মোবাইল সেবা বিঘ্নিত হবে। এর ফলে কল ড্রপের সংখ্যা বাড়বে ও ইন্টারনেটের গতি কমে যাবে।

উল্লেখ্য, গত ২ এপ্রিল গ্রামীণফোনকে একটি নোটিশের মাধ্যমে বিটিআরসিকে ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি ১ লাখ টাকা আর জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে ৪ হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা প্রদান করার নির্দেশ দেয় বিটিআরসি। বিটিআরসির নিয়োগ করা একটি অডিট ফার্ম ১৯৯৭ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সময়ে এই বকেয়া তৈরি হয়েছে বলে প্রতিবেদন দেয়।

একই সঙ্গে রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কাছে অডিটের মাধ্যমে গত ১৯ বছরে ৮৬৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা বকেয়া প্রাপ্তি হয়েছে বলে দাবি করে সংস্থাটি। তবে রবির দাবি, হিসাব নিরীক্ষকরা যেসব কারণে বকেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন, তা এখনও বিচারাধীন রয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ