পুড়ছেন অজিরা, ইতিহাসের পথে ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৯:০০ আপডেট: ১০:২৫

পুড়ছেন অজিরা, ইতিহাসের পথে ইংল্যান্ড

ইতিহাসের পথে ইংল্যান্ড। ইতিহাস ও ঐতিহ্যের এই ম্যাচে জয়ে পথে ইংল্যান্ড। বড় দুর্ঘটনা না ঘটলে অনায়সেই ২২৪ রানের টার্গেট পার করবেন মরগান বাহিনী। সেটিই যদি হয়, তবে ইংলিশদের মাঠেই হবে নতুন ইতিহাস। কেননা, ফাইনালে নিউজিল্যান্ড বা ইংল্যান্ডের হাতে হাতে উঠবে বিশ্বকাপ, তাদের কেউ দেখা পাননি বিশ্বসেরার মুকুট।

অস্ট্রেলিয়া টস জিতে যখন ব্যাট করছিলো তখন মনে হচ্ছিল এখানে দুশ’রান করাই অনেক কঠিন। কিন্তু উল্টো ঘটনা ঘটল ইংল্যান্ড যখন ব্যাট করতে আসলো। অজি পেসাররা ইংলিশ দুই ওপেনার কোন পরীক্ষাই নিতে পারলেন না। অনায়াসেই খেলে যাচ্ছেন তারা। তাদের ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছে ব্যাটিং স্বর্গ এটা। অস্ট্রেলিয়া যেখান প্রথম ১০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৭ রান করছিলেন। সেখানে ইংল্যান্ড প্রথম ১০ ওভারেই কোন উইকে না হারিয়ে তুললেন ৫০ রান। 

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ইংলিশদের সংগ্রহ ১৬ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়ে ১১৬ রান। জনি বেয়ারেস্টো ৩৩ রান ও জেসন রয় ৭৩ রান করে ব্যাট করছেন। 

এর আগে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয় দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সুবিধা করতে পারে না বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।  দলীয় ১৪ রানেই হারায় টপ অর্ডার। এদিন ব্যার্থ ছিলো অজিদের ক্ষুদধার টপ অর্ডার। ৪৯ ওভারে সব ক’টি উইকেট হারিয়ে ২২৩ রান সংগ্রহ করেন অজিরা।  ইংল্যান্ডকে  ফাইনাল খেলতে হলে করতে হবে ২২৪ রান। 

টপ অর্ডারের ব্যর্থ হওয়ার দিনে স্মিথ ছাড়া কেউ তেমন কিছু করে দেখাতে পারেনি। তবে স্মিথকে সঙ্গ দেয়ার চেষ্টা করেছেন ক্যারি-ম্যাক্সওয়েল-স্টার্করা। তারাও সেট হয়ে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এসেছেন। 

দলের এমন চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে উইকেটে নেমেই জফরার বাউন্সারের শিকার হন অ্যালেক্স কেরি। ৭.৬ ওভারে দলীয় ১৪/৩ এবং ব্যক্তিগত ৪ রানে জফরা আর্চারের বাউন্সার সরাসরি কেরির হেলমেটে আঘাত হানে। চোট নিয়েই অনবদ্য ব্যাটিং চালিয়ে যান কেরি।

চতুর্থ উইকেটে স্টিভেন স্মিথের সঙ্গে ১০৩ রানের জুটি গড়েন কেরি। অনবদ্য ব্যাটিং করে ফিফটির পথেই ছিলেন তিনি। আদিল রশিদের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বাউন্ডারিতে ক্যাচ তুলে দেন। তার আগে ৭০ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৪৬ রান করেন কেরি।

এরপর ক্রিজে এসে ম্যাক্সওয়েল করেছেন ২২ রান ও মিচেল স্টার্ক করেছেন ২৬ রান। এছাড়া আর কেউই স্মিথকে সঙ্গ দিতে পারেননি। ২১৭ রানে স্টিভেন স্মিথ রান আউটের ফাঁদে পড়লে মাত্র ৬ রান যোগ করেই থামে অজিদের ইনিংস। 
আউট হওয়ার আগে স্মিথ ১১৯ বলে ৮৫ রান সংগ্রহ করেন। 
 
ব্রেকিংনিউজ/এএফকে