সেবা করতে এসে অনৈতিক কার্যকলাপ স্বাস্থকর্মীদের

কলেজ কর্মচারী ও সাংবাদিক পেটালো জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ার!

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
৩ জুন ২০২০, বুধবার
প্রকাশিত: ০৫:৫৪

কলেজ কর্মচারী ও সাংবাদিক পেটালো জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ার!

বিশ্বে করোনার মহামারি, দেশেও আতঙ্ক। আক্রান্ত অর্ধলক্ষেরও বেশি মানুষ। তাই সরকারের পাশাপাশি এগিয়ে এসেছে বেশ কিছু সংস্থাও। এমনই একটি প্রতিষ্ঠান জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ার। তারা গত দুইমাস ধরে ক্যাম্প চালিয়ে আসছিলো রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে। কিন্তু সর্বশেষ তারা কলেজ কর্তৃপক্ষের সাথেই সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার থেকে দফায় দফায় হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে তিতুমীর কলেজের ৪র্থ শ্রেণির কর্মকর্তাদের সাথে জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের কর্মীদের। সর্বশেষ রাত দুইটার হামলার পর রাস্তায় এসে স্লোগান দিয়ে নিজেদের নিরাপত্তা দাবি করে জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের কর্মীরা।

তিতুমীর কলেজে প্রশাসন থেকে সাধারণ ডায়েরির প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে আর একই ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে জোবেদা খাতুন কেয়ারও। এর মধ্যে সংবাদকর্মীদের ওপর হামলার ঘটনাও ঘটেছে। মঙ্গলবার বেলা দেড়টার দিকে সংবাদকর্মীদের ওপর হামলা চালায় জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের কর্মীরা।

অভিযোগে তিতুমীর কলেজের কর্মচারীরা জানায়, ‘আমাদের ওপর তিনবার হামলা চালানো হয়েছে। রাত ১০টায়, ১২টায় ও রাত ২টায়।’

ঘটনার সূত্রপাত কীভাবে জানতে চাইলে তারা জানান, গত রবিবার ছেলেদের থাকার জায়গায় একজন মেয়েকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। ভেতরে প্রবেশ করতেই করোনা বুথের দু’জন ছেলে এবং একজন একটি মেয়েকে নিয়ে অনৈতিক কার্যকলাপের সময় কলেজের কর্মচারীরা প্রতিবাদ করে। তারা বিষয়টি পাত্তা না দিয়ে উল্টো কর্মচারীদের বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিতে থাকে। সর্বশেষ গত সোমবার রাতে দশটার দিকে দুইজন কর্মীকে তারা কলেজ গেইটে মারধর করে। এরপর রাত ১২টার দিকে আমরা কয়েকজন তাদের কাছে কি কারণে আমাদের কর্মীদের মারধর করা হয়েছে জানতে গেলে তারা বলে তোরা এখানে থাকতে চাইলে ভালোভাবে থাক না হলে, চলে যা। এরপর আবার বিতর্কের এক পর্যায়ে চড়াও হয় জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের কর্মীরা। 

নাম প্রকাশে তিতুমীর কলেজের এক কর্মচারী জানান, ওই হেলথকেয়ারের কর্মীরা কলেজে রাতবিরাতে গান বাজনা করতো। এমনকি রমজানের তারাবির সময়ও এমন করতো। মেয়েদের অবাধ চলাফেরা ছিলো সেখানে। মহল্লার লোকজন অভিযোগ দেয়। পরে কলেজের কর্মচারীরা প্রতিবাদ করে। শুরু সেখানে থেকেই। এরপর হেলথ কেয়ারের একজন মহাখালীর গাউসুল আজম মসজিদের সামনে মেয়ের সঙ্গে অসামাজিক কার্যকলাপে ধরা পড়েন। বিষয়টা কলেজের প্রিন্সিপাল পর্যন্ত গড়ায়। পরে মীমাংসা করা হয়। এরপর গত ১ জুন রাতে কলা ভবনে তাদের একজনকে মেয়েসহ আপত্তিকর অবস্থা ধরে ফেলে কলেজ কর্মচারীরা। এর মাঝে কামরুজ্জামান নামে এক অফিসারের রুমে গভীর রাতে এক মেয়ে যেতে চেয়েছিলো। কিন্তু কর্মচারীদের বাধায় ডুকতে পারেনি। এ সবকে কেন্দ্র করে তারা হামলা করে। 

সরেজমিন জানা যায়,  জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের কর্মীরা তিতুমীর কলেজের কর্মীদের ধাওয়া দিয়ে বের করে দেয় ক্যাম্পাসের মূল ফটকের বাইরে। এরপর রাত দুইটা নাগাদ জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ারের স্বাস্থ্যকর্মীরা লাঠি, চাপাতি নিয়ে তিতুমীর কলেজ কর্মীদের স্টাফ কোয়াটারে হামলা চালায়। এ সময় জিসকা হেলথ কেয়ারের স্বাস্থ্যকর্মীরা বেশ কয়েকটি ঘরের দরজা ভেঙে ফেলে এবং এলোপাথাড়ি হামলা চালায়। এ ঘটনায় আহত হয়ে বেশ কয়েকজন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর মধ্যে তিতুমীর কলেজের কর্মচারী জাবেদ ও শাহাবুদ্দীনের অবস্থা গুরুতর হলেও তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানোর সুযোগও দেয়া হয়নি বলে জানান এক কলেজ কর্মচারী।

এদিকে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে বাংলাদেশ জার্নালের রিপোর্টার হৃদয় আলম ও রাইজিংবিডির ক্যাম্পাস প্রতিনিধি নাজমুল হুদা  জিসকা হেলথ কেয়ারের কর্মীদের হামলায় আহত হয়েছেন।  হৃদয় আলম ব্রেকিংনিউজকে বলেন, প্রথমে আমরা তিতুমীর কলেজ কর্মচারীদের কাছে বিস্তারিত জেনে অধ্যক্ষ আশরাফ হোসেনে সাথে কথা বলে জিসকা হেলথ কেয়ারের স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে কথা বলতে যাই। এসময় তারা বরকত মিলনায়তে থাকেন শুনে আমরা ডাকাডাকি করে কারো সাড়া-শব্দ না পেয়ে ভেতরে ঢুকি। এসময় হঠাৎই প্রায় ৫০জনের মতো লোক এসে আমাদের ধাক্কা এবং কিল ঘুষি দিতে থাকে। তাদেরকে সংবাদকর্মী পরিচয় দিলেও তারা বলেন, ‘তোরা কিসের সংবাদিক, তোদের আসতে বলছে কে, দেইখা নিমু। সবাইকে পিটামু।’

এ ঘটনার তিব্র নিন্দা জানিয়ে তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ মো. আশরাফ হোসেন বলেন, ‘যতটুকু শুনেছি আমাদের স্টাফদের অনেক বর্বরভাবে পেটানো হয়েছে। শিক্ষক কর্মচারীদের সাথে আলোচনা করে আমরা করণীয় ঠিক করবো। তাছাড়া সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনা অতি নিন্দনীয়। আমরা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। তিতুমীরের যারা আহত হয়েছে তাদের সাথেও যোগাযোগ করছি, তাদের খোঁজ-খবর নিচ্ছি।’

তিতুমীর কলেজের কর্মকর্তাদের ওপর হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতি, তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগ, তিতুমীর কলেজ নাট্যদল, শুদ্ধস্বরসহ অন্যান্য সংগঠনগুলো।

তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি এ ধরনের ঘটনা নিন্দনীয় উল্লেখ করে বলেন, ‘হামলার ঘটনায় কারা দোষী তা তদন্তের পর জানা যাবে কিন্তু সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনা নিন্দনীয়।’

তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া বলেন, ‘আমরা এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাই। গভীর রাতে দরজা ভেঙে হামলার ঘটনায় কোনোভাবেই কাম্য নয়। তাছাড়া সংবাদকর্মীদের ওপর হামলার ঘটনায় তারা কেমন উশৃঙ্খল তা বোঝাই যায়।’

জিসকা হেলথ কেয়ারের আহ্বায়ক সাবরিনা আরিফ চৌধুরী বলেন, ‘তিতুমীর কলেজে আমরা একটা ক্যাম্প চালিয়ে আসছি এবং ট্রেনিং সেন্টার গত দুইমাস ধরে। কোভিড-১৯ রোগীদের যারা স্যাম্পল সংগ্রহ করে আমরা তাদের ট্রেনিং দিয়ে থাকি। এখানে আমাদের প্রায় ১৭৫ জনের মতো স্বাস্থ্যকর্মী কাজ করেন। সেচ্ছাসেবীরা। এখন এখানকার যারা বসবাস করেন (তিতুমীরের) ৪র্থ শ্রেণির কর্মকর্তা তারা সব সময়ই একটু ঝামেলা করতো।তারা নানাভাবে মেয়েদেরকে ইভটিজিং করতো। তারপর নামাজ পড়তে যেতে দিতো না, মাঝে মাঝে পানির লাইন বন্ধ করে দিতো। এরকম সমস্যা চালিয়ে আসছিলো, আমরা পিন্সিপাল স্যারের সাথে কথা বলেছি। তো উনি বলতেন যে, ব্যাপারটা দেখি।

সাংবাদিকের ওপর হামলা নিয়ে জানতে চাইলে সাবরিনা আরিফ বলেন, ‘তারা (সংবাদকর্মীরা) আমাদের জানিয়ে যাননি। তাই তাদের ওপর হামলা করা হয়েছে। এছাড়া কেউ যদি সংবাদ সংগ্রহ করতে যান তাহলে আমাদের জানিয়ে যাবে। হঠাৎ করেই যাবে না। আমাকে বলে যদি কেউ দশবারও আসে তাতে সমস্যা নেই। না বলে তো কেউ হুটহাট করে ঢুকে যেতে পারে না।’

সাধারণ ডায়েরি (জিডি) প্রস্তুতি নিচ্ছেন জানিয়ে সাবরিনা আরিফ বলেন, ‘আমরা নিরাপত্তা চাই, যাতে স্বাস্থ্যকর্মীরা থাকতে পারে। আমাদের কার্যক্রম এখন বন্ধ করে রাখতে হয়েছে যার ফলে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। আমরা গতকাল বনাণী থানায় গিয়েছিলাম এবং ওনারা বলেছেন আজ (বুধবার) আমাদের মামলা নিবেন। এখন দেখা যাক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কতোটা কি করে। আমরা সুষ্টু তদন্ত চাই।’

সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আজম মিয়া ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘আমরা এখনও কোনো পক্ষের অভিযোগ পাইনি। সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় শুনিনি। তবে, পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা নিবো।’

ব্রেকিংনিউজ/এএফকে

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি