বৈষম্য ও অসমতা দূর করণে স্যাপে’র ৮ সুপারিশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ১১:৩২

বৈষম্য ও অসমতা দূর করণে স্যাপে’র ৮ সুপারিশ

দক্ষিণ এশিয়ার সকল ক্রমবর্ধমান বৈষম্য ও অসমতা দূরীকরণে আটটি সুপারিশ জানিয়েছে সাউথ এশিয়া অ্যালায়েন্স ফর পভার্টি ইরাডিকেশন (স্যাপে)। 

শনিবার ১৮ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই সুপারিশ তুলে ধরেন ইনসিডিন বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক মুসতাক আলী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দক্ষিণ এশিয়ায় লিঙ্গ ভিত্তিক মজুরির পার্থক্য সবচেয়ে প্রকট এবং এখানে লিঙ্গ ভিত্তিক শ্রমে নিযুক্ত পরিমাণেও পার্থক্য অনেক বেশি যা দিন দিন বেড়েই চলছে। আইএলও-এর ‘ওমেন এট ওয়ার্ক : ট্রেন্ডস ২০১৬’ প্রতিবেদন অনুসারে বিশ্বব্যাপী শ্রমবাজারে নারীদের অংশগ্রহণের হার ৫২.৪ শতাংশ থেকে ৪৯.৬ শতাংশে কমে এসেছে। বিশ্বব্যাপী নারীরা পুরুষের চেয়ে ২৪ শতাংশ কম মজুরি পেয়ে থাকেন, দক্ষিণ এশিয়ায় সন্তানের মা হয়েছেন এমন নারীরা পুরুষের চেয়ে ৩৫ শতাংশ কম এবং সন্তানের মা নন এমন নারীরা পুরুষের চেয়ে ১৪ শতাংশ কম মজুরি পেয়ে থাকেন। স্বল্প সংখ্যক ক্ষমতাবানের হাতে সম্পদ ও ক্ষমতা কুক্ষিগত হওয়ায় এ ধরনের বৈষম্য দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এ ধরনের বৈষম্য মোকাবেলায় দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের এবং অন্যান্য বিশ্বের সরকারসমূহের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আটটি সুপারিশ তুলে ধরেন তিনি।

সুপারিশগুলো হচ্ছে— ধনী এবং দরিদ্রের মধ্যকার ব্যবধান কমানোর জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা, এমন এক অর্থনৈতিক ব্যবস্থা তৈরি করা, যা নারীদের জন্য বৈষম্য ও শোষণমূলক নয়, দেশীয় কর রাজস্ব সচল করা এবং ধনী ব্যক্তি ও কোম্পানির প্রতি অন্যায্য কর ছাড় বন্ধ করা, জনস্বাস্থ্য, শিক্ষা, পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন পুনর্জীবিত করার জন্য বিনিয়োগ করা, শ্রমিক অধিকার গুলো আমাদের অর্থনৈতিক মডেলের ভিত্তিরূপে স্থাপন করা, ক্ষতিগ্রস্ত আক্রান্ত জনগোষ্ঠীকে সুরক্ষা প্রদানের মাধ্যমে জলবায়ু বিপর্যয় রোধ এবং জীবননাশী জ্বালানির অযৌক্তিক প্রভাব দূর করা, নারী ও ক্ষুদ্র কৃষকের ক্ষমতায়নে নিশ্চিতকরা এবং বৈষম্যের পরিবেশের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক অধিকার ও সুশীল সমাজের মুক্তচিন্তা স্থান নিশ্চিত করা।

এসময় অর্থনীতিবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক এমএম আকাশ বলেন, বর্তমানের পার্লামেন্ট ব্যবসায়ীদের পার্লামেন্ট। দেশের সব কিছুতেই বৈষম্য আছে, যদি আপনি দৃঢ় ভাবে লক্ষ্য করেন তাহলে বুঝতে পারবেন। আপনারা যদি একটু লক্ষ করেন যে, শেখ মুজিবুর রহমানের পার্লামেন্ট ও পাকিস্তান আমলের পার্লামেন্টে সব পেশার মানুষই ছিল। কিন্তু বর্তমানে সিক্সটি পারসেন্ট ব্যবসায়ীরা পার্লামেন্ট সদস্য হয়েছে। অর্থাৎ পার্লামেন্টের সদস্য সিক্সটি পার্সেন্ট হচ্ছে ব্যবসায়ী।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে একটা নিয়মে পরিণত হয়েছে টাকা না থাকলে সে নির্বাচন করতে পারবে না। আর যাদের টাকা আছে তারা নির্বাচনে জয়ী হলে দেশের আইন প্রশাসন তাদের দিকেই ঝুঁকে থাকে। তাদেরকে প্রোটেক্ট করে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপিএস এর নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবীর, বাংলাদেশ ডাক্তার এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ড. রশিদ-ই-মাহবুব প্রমুখ।

ব্রে‌কিং‌নিউজ/এএইচএস/এমজি

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
 Monetized by Galaxysoft
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি