আশুলিয়ার ইউপি চেয়ারম্যানের গ্রেফতার দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৫ অক্টোবর ২০২০, রবিবার
প্রকাশিত: ০৪:৫০ আপডেট: ০৪:৫১

আশুলিয়ার ইউপি চেয়ারম্যানের গ্রেফতার দাবি

সাভারের আশুলিয়ায় এক তরুণীকে ধর্ষণ মামলার আসামি ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন মাদবর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় সংগ্রাম পরিষদ।

রবিবার (২৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় তারা। একই সঙ্গে সারাদেশে গুম, খুন, নারী ও শিশু নির্যাতন এবং গার্মেন্টস শ্রমিকদের ওপর নির্যাতন বন্ধের দাবিও জানান।

মানববন্ধ‌নে বক্তারা বলেন, দীর্ঘ দেড় মাস পেরিয়ে গেলেও আশুলিয়ায় নারী ধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন ও তার সহযোগীদের এখনও গ্রেফতার করা হয়নি। আমরা চাই আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হোক।

তারা আরও ব‌লেন, আশুলিয়াতে লেনদেন সংক্রান্ত একটি বিষয়ে বিচার চাইতে গিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় রবিবার ভুক্তভোগী তরুণী বাদি হয়ে অভিযুক্ত আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিন জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কে তদন্তের পাশাপাশি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু এখনও দৃশ্যমান কোনও পদক্ষেপ আমরা দেখতে পাচ্ছি না।

বক্তারা ব‌লেন, চেয়ারম্যানের বাসা থেকে ফেরার পথে ওই তরুণী চেয়ারম্যানের কাছে মিথ্যা অভিযোগ করেছেন এমন অভিযোগ এনে চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার শ্যালক মো. আলমগীর ও ব্যক্তিগত সহকারী সবুজ শিকদার ওই তরুণীসহ তার আত্মীয়কে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে যায়। তাদের দু’জনকে আলাদাভাবে ইউনিয়ন পরিষদের দুটি কক্ষে আটকে রাখে। পরে সেই কক্ষে ঢুকে চেয়ারম্যান জোরপূর্বক ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে।

এছাড়াও চেয়ারম্যান ওই কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর তার শ্যালক আলমগীর ও পিএস সবুজও ওই তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনার পর বিভিন্ন হুমকি ধমকি দিয়ে ধর্ষণের বিষয়টি গোপন রাখার শর্তে তরুণী ও তার আত্মীয়কে ছেড়ে দেয় অভিযুক্তরা।

তারা আরও ব‌লেন, ধর্ষণের শিকার হওয়ার পর ভুক্তভোগী তরুণী আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ তার মামলা রেকর্ড করেনি। বাধ্য হয়ে তিনি আদালতের আশ্রয় নিয়েছেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান এমএইচ মনির মহাসচিব এম শাহজাহান সংগঠনের ঢাকা মহানগরের সভাপতি আব্দুল জলিল প্রমুখ।

মামলার আসামিরা হলেন- আশুলিয়ার টঙ্গিবাড়ি এলাকার মৃত ওহাব মাদবরের ছেলে ও আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহাবুদ্দিন মাদবর (৫০), তার শ্যালক একই এলাকার মৃত হালিম মাদবরের ছেলে মো. আলমগীর (৩৮) ও চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারী আশুলিয়ার আবুল শিকদারের ছেলে সবুজ শিকদার (৩৫)।

ব্রেকিংনিউজ/এসআই

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি