মনিরের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি ছেলের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২১ নভেম্বর ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ০২:২৬

মনিরের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি ছেলের

রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযানে গ্রেফতার হওয়া মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে উঠা সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে তার ছেলে মো. রাফি হোসেন। ব্রেকিংনিউজকে রাফি হোসেন বলেন, ‘আমার বাবা একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। চিকিৎসার জন্য আগামীকাল রবিবার বাবার দুবাই যাবার কথা ছিল। বাবার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ দেয়া হচ্ছে, সব মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘চিকিৎসার জন্য বাবা প্রায় দুবাই যান। আগামীকাল তার ফ্লাইট ছিল। এর আগেই র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে।’ তবে মনিরের শারীরিক কোনও সমস্যা সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেননি তার ছেলে রাফি।

মনির নির্দোষ দাবি করে তার ছেলে রাফি বলেন, ‘আমার বাবা নির্দোষ। তিনি কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না। আমরা আইনগতভাবে সব মোকাবেলা করব। বাবার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ দেয়া হচ্ছে সব ভিত্তিহীন। তিনি একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। আমরা কোর্টে যাবো। সেখানেই প্রমাণ হবে, বাবা দোষী কি-না। সম্পূর্ণ ভুল বোঝাবুঝির মাধ্যমেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

এর আগে গতকাল রাত ১০টা থেকে রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় অভিযান শুরু করে র‍্যাব। এসময় গোল্ডেন মনিরের বাসায় অভিযান চালিয়ে বিদেশি পিস্তল, কয়েক রাউন্ড গুলি, ৬০০ ভরি স্বর্ণ (আট কেজি), ১০টি দেশের মুদ্রা ও এক কোটি নয় লাখ টাকা জব্দ করেছে র‌্যাব।

র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, ১৯৯০ এর দশকে রাজধানীর গাউছিয়ায় একটি কাপড়ের দোকানে সেলসম্যান হিসেবে কাজ করতেন মো. মনির হোসেন। এরপর শুরু করেন ক্রোকারিজের ব্যবসা। তারপর লাগেজ ব্যবসা অর্থাৎ ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে তিনি বিভিন্ন দেশ থেকে মালামাল আনতেন। একপর্যায়ে জড়িয়ে পড়েন স্বর্ণ চোরাকারবারে। এরপর তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অবৈধভাবে স্বর্ণ চোরাচালান, জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে ভূমি দখল করে এখন তিনি হাজার কোটি টাকার মালিক।

অভিযান সম্পর্কে তিনি বলেন, সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩ এর একটি দল শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টায় মেরুল বাড্ডা ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকায় অবস্থান নেয়। অভিযানের মূল কারণ ছিল অবৈধ অস্ত্র ও মাদক। মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরকে গ্রেফতারের পর তার হেফাজত থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, বিদেশি মদ এবং প্রায় ৯ লাখ টাকার বৈদেশিক মুদ্রা পাওয়া যায়। তার বাসা থেকে আট কেজি স্বর্ণ ও নগদ এক কোটি ৯ লাখ টাকা নগদ জব্দ করা হয়েছে।

গোল্ডেন মনিরের ১ হাজার ৫০ কোটি টাকার উপর সম্পদ রয়েছে। আপাতাতো জব্দ করা হয়েছে ৯ লাখ টাকা মূল্যে ১০টি দেশের বৈদেশিক মুদ্রা ও ৮ কেজি স্বর্ণ। 

আশিক বিল্লাহ বলেন, গ্রেফতার মনিরের বিরুদ্ধে বাড্ডা থানায় অস্ত্র, মাদক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করবে র‍্যাব। বাড্ডা, নিকেতন, কেরানীগঞ্জ, উত্তরা, নিকুঞ্জে ২০০ অধিক প্লট রয়েছে মনিরের। মনিরের নামে দুইটি মামলা চলমান রয়েছে। রাজউকের সিল নকল করে ভূমিদস্যুতা ও দুদকের করা একটা মামলা চলমান রয়েছে। সে একটি রাজনৈতিক দলে অর্থ যোগানদাতা ছিলো বলে প্রাথমিক তথ্য পেয়েছে র‍্যাব।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, মনিরের ৫টি বিলাশ বহুল গাড়ি অনুমোদন না থাকায় জব্ধ করা হয়েছে। যার প্রতিটির মূল্য ৩ কোটি টাকার অধিক। পরবর্তীতেতে এনবিআর, বিআরটিএ, সিআইডিকে এদের অনুসন্ধানে র‍্যাব সহায়তা করবে।

ব্রেকিংনিউজ/টিটি/এসআই

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি