শিরোনাম:

উর্দুতে রামায়ণ অনুবাদ করলেন কানপুরের মুসলিম নারী

রকমারি ডেস্ক
৩ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: 5:11
উর্দুতে রামায়ণ অনুবাদ করলেন কানপুরের মুসলিম নারী

উর্দুতে রামায়ণ অনুবাদ করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য নজির গড়লেন কানপুরের এক মুসলিম নারী।

ওই নারীর নাম ডক্টর মাহি তালাত সিদ্দিকি। তিনি কানপুরের প্রেম নগর এলাকার বাসিন্দা।
 
মাহি তালাত জানান, রামায়ণের মহত্বের কথা হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশাপাশি মুসলিম সম্প্রদায়ও জানুক- তা তিনি চেয়েছেন।

প্রায় দুই বছর আগে কানপুরের বাসিন্দা বদ্রি নারায়ণ তিওয়ারি ডক্টর তালাতকে রামায়ণের একটা কপি দিয়েছিলেন। এরপর তালাত এটি উর্দুতে অনুবাদের সিদ্ধান্ত নেন।

এএনআই-কে ডক্টর তালাত বলেন, ‘সব সম্প্রদায়ের পবিত্র গ্রন্থের মতোই রামায়ণও আমাদের শান্তি ও ভ্রাতৃত্বের বার্তা দেয়। এটা খুব সুন্দর করে লেখা হয়েছে। এটি উর্দুতে লেখার পর আমি অত্যন্ত শান্তি এবং স্বস্তি পেয়েছি।’

তিনি জানান, এটি অনুবাদ করতে তার দেড় বছরের বেশি সময় লেগেছে। অনুবাদের সময় মূল অর্থের যেন বিকৃতি না ঘটে সেজন্য তিনি অত্যন্ত সাবধানী ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়ে অনেকেই সমাজে সমস্যা সৃষ্টি করেন। কিন্তু কোনও ধর্মই পরস্পরকে ঘৃণা করার শিক্ষা দেয় না। সব ধর্মের মানুষেরই পরস্পরকে ভালবেসে একসঙ্গে বসবাস করা উচিত এবং পরস্পরের ধর্মকে শ্রদ্ধা করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

হিন্দি সাহিত্যে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জনকারী তালাত জানান, ভবিষ্যতেও লেখার মাধ্যমেই তিনি সমাজে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে চান। সূত্র: এডিটিভি

ব্রেকিংনিউজ/আরএ

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2