শিরোনাম:

দরিদ্র মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১১ জুলাই ২০১৮, বুধবার
প্রকাশিত: 2:16 আপডেট: 4:51
দরিদ্র মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘দেশের দরিদ্র মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে আমরা (আওয়ামী লীগ সরকার) সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছি। গত ৯ বছরে বাংলাদেশে কী পরিবর্তন হয়েছে, আপনারা নিজেরাই তা দেখতে পাচ্ছেন।’

বুধবার (১১ জুলাই) রাজধানীর আশকোনায় হজ অফিসে ‘হজ কার্যক্রম-২০১৮’এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

হজযাত্রীদের কাছে দোয়া কামনা করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা পবিত্র কাজে যাচ্ছেন। দোয়া করবেন। আমি যেন আপনাদের খেদমত করার সুযোগ পাই।  ইসলাম ধর্ম পবিত্র ধর্ম, শান্তির ধর্ম। অথচ আমরা মাঝে মাঝে দেখি কিছু মানুষ ধর্মের নাম নিয়ে সন্ত্রাসী-কর্মকাণ্ড বা জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে। তখন সারাবিশ্বের কাছে আমাদের ধর্ম প্রশ্নবিদ্ধ হয়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কিছু মানুষের জন্য সংঘাত লেগে থাকে। সমস্যা সৃষ্টি করে ধর্মকে অপমান করার অধিকার কারও নেই। কাজেই এ ধর্ম যাতে উচ্চ আসনে থাকে, সেই ব্যবস্থাই করতে হবে। আমরা চাই, আমাদের ধর্মটা মানুষের কাছে একটা উচ্চ আসনে থাকুক। সেটাই আমাদের লক্ষ্য।’

এসময় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সারাদেশে প্রায় ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মাণের প্রসঙ্গ সরকার প্রধান বলেন, ‘ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে মানুষ যাতে কোন বিভ্রান্ত না হয়। সেই শিক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। এ জন্য যা যা প্রয়োজন সব আমরা করে দেবো। এরই মধ্যে প্রায় ৮০ ভাগ জায়গা নির্দিষ্ট করে ফেলেছি এবং মসজিদ নির্মাণের কাজও আমরা শুরু করেছি। ৮ হাজার কোটি টাকার উপর এসব মসজিদ নির্মাণে ব্যয় হবে।’

১৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হবে। এ বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ হজযাত্রী হজে যাবেন। সরকারি ব্যবস্থাপনায় ছয় হাজার ৭৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার লোক হজ করতে যাবেন।

ব্রেকিংনিউজ/ আরএইচ/ এসএ 

Ads-Sidebar-1
জাতীয়
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2