শিরোনাম:

২১ সালের মধ্যে কেউ গৃহহীন থাকবে না: শাহরিয়ার আলম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রাজশাহী
১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 10:59
২১ সালের মধ্যে কেউ গৃহহীন থাকবে না: শাহরিয়ার আলম <br />

আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, হতদরিদ্র মানুষের চাহিদা মোতাবেক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার গরীবের হক গরীবের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে কাজ করছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মনিগ্রামে ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পের অধীন উপজেলার সুবিধাভোগীদের মাঝে ঘর বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, এ প্রকল্পের আওতায় বাঘা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ৪০৮টি বাড়ি নির্মাণ করার কাজ সরকার হাতে নিয়েছে। প্রতিটি বাড়ি একলাখ টাকা হিসেবে চার কোটি আট লাখ টাকা ব্যয়ে দুই মাসের মধ্যে কাজ শেষ করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাঘা-চারঘাটের কোনও মানুষ বলতে পারবে না যে তার বাড়িতে বিদ্যুতের আলো পৌঁছেনি। যদি কেউ বলতে পারে, তখনি তার বাড়িতে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন, গ্রামের কোনও মানুষ বলেনি যে, আমার জমি আছে ঘর নেই। এ উদ্যোগ প্রধানমন্ত্রী নিজের চিন্তাভাবনা থেকে গ্রহণ করেছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাড়ে সাত কোটি মানুষের দুঃখ লাঘবে যে স্বপ্ন দেখেছিলেন প্রধানমন্ত্রী তা বাস্তবায়ন করতে চায়। দরিদ্র মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে গ্রামে গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক করা হচ্ছে। রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন হচ্ছে, শিক্ষা খাতে আমূল পরিবর্তন হয়েছে, বিদ্যুতের কমতি নেই। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানুষ দাবি করার আগেই সকল আশা-আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটছে। গরীবের টাকার যেন সৎ ব্যবহার হয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সেই আদর্শের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। তাই আপনাদের বাঘা-চারঘাটের মানুষকে বিচার বিবেচনা করে আগামী নির্বাচনে ভোট দিয়ে দেশের চলমান উন্নয়নকে ধরে রাখতে হবে।

বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল আলম, সাধারণ সম্পাদক বাবুল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ রানা টুলু উপস্থিত ছিলেন। 

ব্রেকিংনিউজ/এসডিএম/এনএসএন/আরএ

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2