দীর্ঘ আন্দোলনে সফল খুলনার পাটকল শ্রমিকরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৬ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ১২:০০

দীর্ঘ আন্দোলনে সফল খুলনার পাটকল শ্রমিকরা

দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের পর নতুন মজুরি কমিশনের পে স্লিপ হাতে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা খুলনার রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে খুলনায় স্ব স্ব মিলে গেটসভা করে শ্রমিকনেতা ও মিলের কর্মকতারা ‘স্লিপ’ তুলে দেন শ্রমিকদের।

পাটকল শ্রমিকদের সূত্রে জানা যায়, মজুরি স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী পাটকল শ্রমিকদের মজুরি বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। খুলনা-যশোর অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত ক্রিসেন্ট, প্লাটিনাম, খালিশপুর, দৌলতপুর, স্টার, আলীম, ইস্টার্ণ, জেজেআই ও কার্পেটিং এ নয়টি পাটকলে নতুন মজুরি স্কেল অনুযায়ী ৪ জানুয়ারি থেকে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত এক সপ্তাহে প্রায় ৬ কোটি ৮৫ লাখ ৮১ হাজার টাকার মজুরি স্লিপ প্রদান করা হয়েছে।

প্লাটিনাম জুট মিল সিবিএ’র সভাপতি সাহানা শারমিন বলেন, দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের পর অবশেষে খুলনাসহ সারাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা তাদের কাঙ্ক্ষিত মজুরি স্কেল-২০১৫ এর মজুরি স্লিপ পেয়েছেন। নতুন এই মজুরি কমিশন বাস্তবায়নের ফলে একজন শ্রমিক পূর্বে যেখানে ২ হাজার ২০০ টাকা সাপ্তাহিক মজুরি পেতেন এখন সেখানে ৪ হাজার ৩০০ টাকা মজুরি পাবেন। আর যে শ্রমিক আগে ২ হাজার ৩০০ টাকা মজুরি পেতেন সেই শ্রমিক এখন ৪ হাজার ৪০০ টাকারও বেশি মজুরি পাবেন। অর্থাৎ এখন প্রায় দ্বিগুণ মজুরি পাবেন তারা।

তিনি আরও বলেন, তবে এখনও প্রতিটি মিলে ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ করে মজুরি পাওনা রয়েছে শ্রমিকদের। আর ১১ দফা আন্দোলনের বাকি ১০ দফা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করবে সরকার এমন প্রত্যাশা শ্রমিকদের।

বিজেএমসির খুলনা আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মো. বনিজ উদ্দিন মিঞা জানান, করপোরেশনের নির্দেশনা অনুযায়ী খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত নয়টি পাটকলের শ্রমিকদের বৃহস্পতিবার মজুরির প্রথম স্লিপ দেওয়া হয়েছে। নতুন মজুরি স্কেল অনুযায়ী শ্রমিকদের ৮০ থেকে ৮৫ শতাংশ মজুরি বাড়বে।

উল্লেখ্য, পাটখাতে প্রয়োজনীয় অর্থবরাদ্দ, বকেয়া মজুরি- বেতন পরিশোধ, জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশনের রোয়েদাদ ২০১৫ কার্যকর, অবসর প্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ ও গ্র্যাচুইটির অর্থ পরিশোধ, চাকুরীচ্যুত শ্রমিক-কর্মচারীদের পুর্নবহাল সহ ১১ দফা দাবিতে গত বছরের ১৭ নভেম্বর ৬ দিনের কর্মসূচির ডাক দেয় রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদ।

এ কর্মসূচির অংশ হিসাবে ১০ ডিসেম্বর থেকে অনশন কর্মসূচি পালন করে শ্রমিকরা। অনশনের চতুর্থ দিন ১৩ ডিসেম্বর রাতে শ্রম প্রতিমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে কর্মসূচি ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেছিল আন্দোলনকারীরা। 

পরবর্তীতে ১৫ ডিসেম্বর বিজেএমসিতে ও ২৬ ডিসেম্বর শ্রম মন্ত্রণালয়ে শ্রমিক নেতাদের সাথে বৈঠকে দাবির ব্যাপারে কোন সমাধান না হওয়ায় আবারও অনশন কর্মসূচির ডাক দেয় সংগ্রাম পরিষদের নেতারা।

২৮ ডিসেম্বর খুলনা-যশোর অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকলে শ্রমিক সভার মাধ্যমে অনির্দিষ্ট কালের জন্য অনশন কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেন সংগ্রাম পরিষদের নেতারা। এরপর ১৬ জানুয়ারির মধ্যে মজুরি কমিশন স্লিপ হাতে পৌঁছানো ও অন্যান্য দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাসে গত ২ জানুয়ারি অনশন কর্মসূচি স্থগিত করে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদ।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি