রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকির মুখে রিজার্ভ মুখ সড়ক

মিশু দে, রাঙ্গামাটি
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ০৪:২২

রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকির মুখে রিজার্ভ মুখ সড়ক

প্রাকৃতিক ও দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি অনুকুলে থাকায় গত কয়েকবছরের তুলনায় এই বছর রাঙ্গাটিতে পর্যটকের আনাগোনা বেড়েছে কয়েক গুণ। পাহাড় লেকে ঘেরা জেলাটিতে পর্যটকদের মনের খোরাক মেটাতে ঝুলন্ত ব্রিজের পাশাপাশি নতুন রুপে গড়ে উঠছে পলওয়েল পার্ক, আরণ্যক রির্সোট সহ বেশ কিছু পর্যটন স্পর্ট।

রাঙ্গামাটিতে ইতিহাসের ভয়াবহ পাহাড় ধসের সময় জেলা সমাজ কল্যাণ কার্যালয়ের গেইটের সম্মুখ ভাগের সড়কটির পূর্বপাশের প্রায় এক থেকে দেড়শত ফুট ভেঙে কাপ্তাই লেকে বিলীন হয়ে যায়। যার কারণে সড়কটি বাঁচাতে সড়ক ও জনপথ বিভাগ স্থায়ী কোন পদক্ষেপ এখনো পর্যন্ত না নিলেও, নিয়ে ছিলেন বল্লির মাধ্যমে অস্থায়ী সংষ্কারের। 

গত বৃহস্পতিবার রাতে পর্যটকবাহী একটি বাস সড়কটির পশ্চিমপাশে সীমানা প্রচীরে আঘাত করলে সীমানা প্রচীর ও সড়কটির ১০-১২ফুট অংশে ফাটল দেখা যায়। যার কারণে এলাকার লোকজন সম্মুখ সড়কটির বেশ কিছু অংশ লাল কাপড় উড়িয়ে ও কাঠ ফেলে যাতে গাড়ি চলাচল যাতে সে পাশ দিয়ে না করে তার ব্যবস্থা করে। তেমনি ভাবে সড়কটির ডিসি বাংলো ও রাঙ্গামাটির সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের চৌরাস্তা মোড়ের কিছুটা আগেও প্রায় ৪-৫ফিট জায়গাও রয়েছে ভাঙ্গন ঝুঁকিতে। সেখানেও লাল কাপড় উড়িয়েছেন স্থানীয়রা।

ঝুঁকিতে থাকা সড়কটির পশ্চিম পাশে বসবাস করা নয়ন দে জানান, কোন কারণে এই সড়কের ভাঙন প্রতিরোধক প্রচীরটি ভাঙলে, সেটি আমাদের বাড়ি ওপরই পরড়ে। বৃহস্পতিবার রাতে একটি বাস এই প্রাচীরটিতে আঘাত করলে সড়ক ও প্রচীর অংশের মধ্যে ফাটল দেখা যায়। যার কারণে আমাদের দাবি এই সড়কটি পূর্বপাশ স্থায়ী সংস্কার না হওয়া পর্যন্ত যাতে এই সড়কে ভারি যান চলাচল না করে। 
এদিকে পলওয়েল পার্ক নতুন রুপে সাজানোর পর থেকে সেখানে আনাগোনা বেড়েছে দেশি- বিদেশি পর্যটকের। কিন্তু সমাজ কল্যাণ কার্যালয়ের সম্মুখ ভাগে ঝুঁকিতে থাকা সড়কদিয়েই পলওয়েল পার্কে যাতায়াত করতে হয় পর্যটকবাহী বাস ও অন্যান্য গাড়িগুলোকে। এমন পরিস্থিতিতে একদিকে সড়কটির পশ্চিমপাশে বসবাস করা বেশ কিছু পরিবার ভাঙন ভয়ে যেমন আছে, তেমনি ভাবে যেসব পর্যটকদের পলওয়েল পার্ক পর্যন্ত গাড়িতে যেতে দেওয়া হচ্ছে না তাদেরও দুভোর্গ পোহাতে হচ্ছে পলওয়েল পার্কে যেতে।

রাঙ্গামাটি ট্রাফিক পুলিশের টিআইও মো. ইসমাইল হোসেন জানিয়েছেন, আমরা আপাতত পর্যটকবাহী ভারি যানগুলোকে চলাচল করতে দিচ্ছি না এই সড়কটি দিয়ে।

রাঙ্গামাটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহি আরেফিন জানিয়েছেন, আমরা বিষয়টি শুনেছি। আমরা এই সড়কটি পরিদর্শনে পাব দ্রুত সময়ের মধ্যে। সড়কটি পরিদর্শনের পর পরই আমরা সিদ্ধান্ত নিব সড়কটিতে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে কি ব্যবস্থা নেয়া যায়। সেটি সংস্কার হোক বা নতুন প্রকল্প হাতে নিতে হোক সে বিষয়ে আমরা ব্যবস্থা নিব।

রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ শুক্রবার বিকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত জরুরি সভায় বলেছেন, সড়কটি বাঁচাতে হলে সে সড়কে ভাড়ি যানচলাচল বন্ধ করতে হবে এবং যেসব পর্যটক পলওয়েল পার্কে যাবেন তাদের শিশু পার্ক সংলগ্ন জায়গায় গাড়ি থেকে নেমে রাঙ্গামাটির প্রকৃতি সৌর্ন্দয্য উপভোগ করতে করতে পলওয়েল পার্কে যাওয়ার জন্য  আহবান জানান। তার পাশাপাশি তিনি সে সড়কে যাতে ভারি যান চলাচল করতে না পারে সে বিষয়টি দেখার জন্য নিদের্শনাদেন রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশকে।

ব্রেকিংনিউজ/এমএইচ

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি