চট্টগ্রামে জিপিএ-৫ এ এগিয়ে মেয়েরা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
৩১ মে ২০২০, রবিবার
প্রকাশিত: ০১:৩৩

চট্টগ্রামে জিপিএ-৫ এ এগিয়ে মেয়েরা

মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮৪.৭৫ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ৮ জন। তারমধ্যে ছাত্র ৪ হাজার ২৪৫ জন এবং ছাত্রী ৪ হাজার ৭৬৩ জন। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বেশিরভাগ অবদান রেখেছে ছাত্রীরা।

রবিবার (৩১ মে) দুপুরে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ণ চন্দ্র নাথ এ কথা বলেন।

নারায়ণ চন্দ্র নাথ বলেন, এ বছর চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা বিগত বছরের তুলনায় অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়েছে। জিপিএ-৫ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বেশিরভাগ অবদান রেখেছে ছাত্রীরা। তাদের জিপিএ-৫ বৃদ্ধি পেয়েছে গত বছরের চেয়ে ১ হাজার ২২টি। যাকে মেয়ে শিক্ষার অগ্রগতির ক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্য বলা যেতে পারে। চট্টগ্রাম বোর্ডের অধীনে যে তিনটি পিছিয়ে পড়া পার্বত্য এলাকা রয়েছে সেখানেও এবার পাশের হার গত বছরের তুলনায় উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের দৃষ্টিতে ফলাফল ভালো হওয়ার পিছনে দু’টি বিষয় ভালোভাবে কাজ করছে। এর প্রথমটি হলো সরকারের গৃহীত শিক্ষামুখী বিভিন্ন পদক্ষেপ। বিশেষ করে নারী শিক্ষা এবং স্বল্পোন্নত এলাকায় শিক্ষা বিস্তারের জন্য বর্তমান সরকারের নানমুখী পদক্ষেপের কারণে শিক্ষার্থীরা স্কুলমুখী হয়েছে। যার ফলাফল আসতে শুরু করেছে। বিজ্ঞজনদের মতে এ বছর চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের প্রশ্নপত্র বেশ কঠিন হয়েছিল। তা সত্বেও ভালো ফলাফল শিক্ষার্থীদের উৎকর্ষতার কথা প্রমাণ করিয়ে দেয়।

তিনি আরও বলেন, ফলাফল ভালো হওয়ার পিছনে দ্বিতীয় কারণ হিসেবে বলা যায়, এ বছর উত্তরপত্র বির্তরনকালে পরীক্ষকদেরকে উত্তরপত্র মূল্যায়নে যথেষ্ঠ আন্তরিক এবং যথেষ্ঠ সময় প্রদানের জন্য বারবার অনুরোধ এবং তা নজরদারীতে রাখা হয়। তাছাড়া উত্তরপত্র নিরীক্ষণ কাজটি সঠিকভাবে সম্পন্ন করার উপর অধিক জোর দেয়া হয়, যাতে পরীক্ষার্থীরা অহেতুক ক্ষতির সম্মুখীন না হয়। এ সমস্ত পদক্ষেপ চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডর ভালো ফলাফলে অবদান রেখেছে বলে মনে করি এবং আশা করছি ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

শিক্ষা বোর্ডের তথ্য মতে, এবার মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ৮ জন শিক্ষার্থী। যেখানে গত বছর জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৩৯৩ জন শিক্ষার্থী। তারমধ্যে ছাত্র ৪ হাজার ২৪৫ জন এবং ছাত্রী ৪ হাজার ৭৬৩ জন।

প্রসঙ্গত, এ বছর ১৯৬টি কেন্দ্রে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৮২৩ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে। তারমধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ২১ হাজার ৮৮৮ জন । এর মধ্যে ছাত্র ৫৫ হাজার ৮৩৯ জন এবং ছাত্রী ৬৬ হাজার ৪৯ জন।  পাশের হার ৮৪.৭৫ শতাংশ যা আগের বছরের তুলনায় ৬.৭৭ শতাংশ বেশি। বিজ্ঞানে পাসের হার ৯২.২৩ শতাংশ ব্যবসায়ে পাসের হার ৮৮.৬৭ এবং মানবিকে পাসের হার ৭৫.৮৪ শতাংশ।

ব্রেকিংনিউজ/এমএইচ

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি