প্রস্তুত বোর্ডগুলো, ১৫ দিন সময় পেলেই এইচএসসি পরীক্ষা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ০৮:৪০ আপডেট: ০১:২৯

প্রস্তুত বোর্ডগুলো, ১৫ দিন সময় পেলেই এইচএসসি পরীক্ষা

চলতি বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা না হলেও স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিজস্ব পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড। তবে অষ্টম শ্রেণিতে সিলেবাসের যে অংশটুকু পড়ানো সম্ভব হয়নি সেটা নবল শ্রেণিতে পড়ানো হবে। এ লক্ষ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে নির্দেশনা পাঠানো হবে।

সিলেবাসের কতটুকু বা কোন অংশ পড়ানো হবে সেটি নির্ধারণে বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিটকে (বেডু) দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। 

বাংলাদেশ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির পূর্বনির্ধারিত বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সব শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের অংশগ্রহণে গতকাল বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সভাকক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

ধারণা ছিল, এই বৈঠকেই হয়তো এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে। তবে বিষয়টি আলোচনায় তেমনভাবে উঠে আসেনি। 

শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা জানিয়েছেন, ১৫ দিন সময় পেলেই তারা এইচএসসি পরীক্ষা নিতে প্রস্তুত। তবে এইচএসসি পরীক্ষার তারিখ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা করবে। 

বৈঠক শেষে এ বিষয়ে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমম্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে তেমন আলোচনা হয়নি। এ বছরের জেএসসি পরীক্ষার্থীদের নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণের ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে যে, স্কুলগুলো নিজ নিজ পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করবে।’

তিনি বলেন, ‘এ বছর আড়াই মাস ক্লাস হয়েছে। এর বাইরে সংসদ টেলিভিশন ও অনলাইনে ক্লাস হয়েছে। যে প্রতিষ্ঠান যতটুকু পড়াতে পেরেছে ততটুকুর ভিত্তিতে মূল্যায়ন হবে। এ ব্যাপারে শিগগিরই আমরা একটা গাইডলাইন দেবো।’

অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক আরও বলেন, ‘আর নবম শ্রেণির ক্ষেত্রেও সেভাবে একটা মূল্যায়ন করে পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে। কারণ, নবম এবং দশম শ্রেণি মিলে একটা সিলেবাস। একটা সিলেবাসের অর্ধেক নবম শ্রেণিতে এবং পরবর্তী অংশ দশম শ্রেণিতে পাঠদান করা হয়। নবম শ্রেণিতে যে পাঠদান আছে তা দশম শ্রেণিতে পাঠদান করা হবে। আর দশম শ্রেণিতে যেটি বাকি আছে সেটি যখন আমরা স্কুল খুলবো তখন শেষ করে দেবো।’

গেল ১ এপ্রিল সারা দেশে একযোগে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে তা স্থগিত হয়ে যায়। 

নভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় গত ১৭ মার্চ দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। ২৬ মার্চ থেকে সারা দেশে সব অফিস-আদালত ও যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়। শুরু হয় কঠোর ‘লকডাউন’।

এরপর টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটির পর গত ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খুলে যানবাহন চলাচল শুরু হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ছু্টির বাড়ানো হয় ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। 

তবে সেই মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই গত ২৭ আগস্ট শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ছুটি আরও এক দফা বাড়িয়ে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত করা হয়। 

এরইমধ্যে চলতি বছরের পিইসি ও জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে দীর্ঘ দিন ধরেই অনলাইন মাধ্যমে পাঠদান চলছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি