‘আমি যাবো, যেভাবেই পারি গাইবো’

বিনোদন ডেস্ক
৭ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৪:৪২

‘আমি যাবো, যেভাবেই পারি গাইবো’

গেল ফেব্রুয়ারির কথা। তখনও সিঙ্গাপুরেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন এন্ড্রু কিশোর। কি জানি, হয়তো অনেকের মনেই দেশের তারকা শিল্পীর জীবন-মৃত্যু নিয়ে একটা শঙ্কা ও ভীতি কাজ করছিল! নইলে সুদূর সিঙ্গাপুরে কেন তখন আয়োজন হবে ‘এন্ড্রু কিশোরের জন্য ভালোবাসা’। আদতে তার চিকিৎসার তহবিল সংগ্রহের লক্ষ্যেই ওই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়েছিল। 

৯ ফেব্রুয়ারি সিঙ্গাপুরের জালান বুকিত মেরাহর গেটওয়ে থিয়েটারে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় এন্ড্রু কিশোরের জন্য গাইতে মঞ্চে উঠেছিলেন সৈয়দ আব্দুল হাদী, সাবিনা ইয়াসমীন ও মিতালী মুখার্জী। সিঙ্গাপুর চেম্বার অব কমার্স ও বাংলাদেশ সোসাইটি সিঙ্গাপুর যৌথভাবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেছিল।

সেই সঙ্গীতসন্ধ্যায় ছুটে যাওয়ার জন্য সেদিন মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই গুণী শিল্পী। দীর্ঘদিনের চলার পথের সঙ্গী খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী, সাবিনা ইয়াসমীন ও মিতালী মুখার্জীরা যেখানে তার জন্য একমঞ্চে গাইবেন সেখানে কি তিনি না গিয়ে থাকতে পারেন! সেদিন ঘরে বসে থাকতে পারেননি এন্ড্রুও। শরীরটা সায় না দিলেও শুধু গানের প্রতি ভালোবাসা আর আবেগের জোরে সেদিন ছুটে গিয়েছিলেন অনুষ্ঠানে।

যাওয়ার আগে বারবার ছেলেমানুষির জেদ নিয়ে বলছিলেন- ‘আমি যাবো, আমাকে যেতেই হবে। গাইবো, যেভাবেই পারি আমি গাইবো’। কথাগুলো শিশুদের আবদারের মতো শোনালেও এই কথার গভীরেই সত্যিকারের একজন গায়ক এন্ড্রুকে আবিষ্কার করা যায়। 

সেদিন মঞ্চে একটি হুইলচেয়ারে তাকে বসতে হয়েছিল। চোখেমুখে ছিল ভয় ও বাঁচার আকুতি। ছিল সুস্থ হয়ে দেশে ফেরার আকাঙ্ক্ষা। পরনে ছিল লাল পাঞ্জাবি, মাথায় কালো হ্যাট। জীবনভর যে মানুষটি মঞ্চে মাইক্রোফোন হাতে সটান দাঁড়িয়ে দর্শকদের গান শুনিয়েছেন, সেদিন তাকে গাইতে হলো হুইলচেয়ারে বসে। 

জীবন মঞ্চের শেষ অংকের দৃশ্যটা হয়তো সেদিন এন্ড্রুর অন্তর্দৃষ্টিতে বারবার উঁকি দিয়ে যাচ্ছিল। তাইতো মাইক্রোফোন হাতে সবাইকে স্তব্দ করে দিয়ে তিনি গেয়ে উঠেছিলেন- ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প...’। পুরো মঞ্চের দর্শকদের চোখের পাতা ভিজিয়ে এই প্লেব্যাক সম্রাট সেদিন গেয়েছিলেন- ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি...’।

নিজে অসুস্থ ছিলেন। জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছিলেন। অথচ অসুস্থ সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক সেলিম আশরাফের চিকিৎসা সহায়তায় সেদিন আব্দুর হাদী ও সাবিনা ইয়াসমীনের হাতে ৫ হাজার সিঙ্গাপুরী ডলারের একটি খাম তুলে দিয়ে মহান এই শিল্পী আরও একবার মনে করিয়ে দিয়েছিলেন- ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য’।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি