‘স্টার সিনেপ্লেক্সকে প্রণোদনা দিয়ে এই ঝড়টা সামাল দিতে দেন’

বিনোদন ডেস্ক
১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৪:৪৮

‘স্টার সিনেপ্লেক্সকে প্রণোদনা দিয়ে এই ঝড়টা সামাল দিতে দেন’

করোনার কারণে গত মার্চ মাস থেকে স্থবির ছিল দেশের প্রতিটি সেক্টর। বন্ধ ছিল সব ধরনের শুটিং এবং সিনেমা হল। লকডাউন শিথিল হওয়ার পর সব সেক্টরই কম-বেশি সচল হয়েছে। নিয়ম মেনে শুটিংও শুরু হয়েছে। কিন্তু এখনো তালা ঝুলছে সিনেমা হলগুলোর গেটে। এটা সিনেমা ব্যবসায়ী ও হল মালিকদের জন্য নিঃসন্দেহে হতাশাজনক।

এই পরিস্থিতিতে বরাবরের জন্য বন্ধ হয়ে যেতে পারে দেশের সবচেয়ে বড় এবং বিলাসবহুল সিনেমাহল স্টার সিনেপ্লেক্স। বুধবার একটি সংবাদ সম্মেলন করে এমনই আভাস দিয়েছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল। তিনি জানিয়েছেন, সিনেমা ব্যবসার এই দুর্দিনে সরকারি সহায়তা না পেলে তাদের সামনে স্টার সিনেপ্লেক্স বন্ধ করে দেয়া ছাড়া আর কোনো পথই খোলা থাকবে না।

এই প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী একটি স্ট্যাটাস দিয়েন। সরকারের কাছে অনুরোধ করে তিনি লিখেন,


'কালকে দেখলাম স্টার সিনেপ্লেক্স সংবাদ সম্মেলন করে বলছে সরকারী আর্থিক প্রণোদনা না পেলে তারা ব্যবসা গুটিয়ে নিতে বাধ্য হবে! যদি সত্যিই এটা হয়, তাহলে তা হবে আমাদের অলরেডি ধুঁকতে থাকা সিনেমার জন্য একটা বড় ধাক্কা ! 

প্রিয় সরকারী ভাই-বোনেরা, সারা দুনিয়াতেই সরকার সিনেমা সংশ্লিষ্ট পেশাজীবী এবং থিয়েটারগুলোকে বিভিন্ন রকম প্রণোদনা প্যাকেজ দিয়েছে! আমি মাঝে মধ্যে ঠিক বুঝি না সিনেমার ব্যাপারে আমাদের কর্তা ব্যক্তিদের ইচ্ছাটা কী! আপনারা যদি সত্যিই সিনেমার ভালো চান, তাহলে এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের প্রণোদনার আওতায় আনুন!

স্টার সিনেপ্লেক্স স্রোতের বিরুদ্ধে ব্যবসা চালু করে দারুন সাফল্য দেখিয়েছে এবং বাংলাদেশের সিনেমা প্রদর্শনের একটা বড় জায়গা হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে! সিঙ্গেল স্ক্রিণগুলো যখন ধুঁকছিলো সংগত কারণেই, তখন হলের সংখ্যা বাড়িয়ে যাচ্ছিলো সিনেপ্লেক্স! আমার বিশ্বাস করোনার থাবা না পড়লে, আগামী কয়েক বছরে আমাদের প্রধান শহরগুলোতে সিনেপ্লেক্সের শাখা তৈরি হয়ে যেতো! সেই সিনেপ্লেক্স এখন ব্যবসা বন্ধ করার কথা ভাবছে! বাংলাদেশের তরুন ফিল্মমেকাররা জানে বেশী কিছু না কেবল বড় দশটা শহরে স্টার সিনেপ্লেক্স বা অন্য কোনো মাল্টিপ্লেক্স তাদের শাখা করতে পারলে বাংলাদেশের সিনেমা ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য কারো কাছে হাত পাততে হবে না! 

সরকারের উদ্দেশ্যে তাই বলতে চাই, আপনারা চান সিনেমা ঘুরে দাঁড়াক?

স্টার সিনেপ্লেক্সকে প্রণোদনা দিয়ে এই ঝড়টা সামাল দিতে দেন! 

একই সাথে প্রতিটা জেলা শহরে ন্যূনতম একটা সিঙ্গেল স্ক্রিণকে লোন এবং প্রণোদনা মিলিয়ে একটা প্যাকেজ দিন! তবে এক শর্তে তারা সেই টাকা পাবে! যদি তারা তাদের সিঙ্গেল স্ক্রিণকে মাল্টিপ্লেক্সে রূপান্তরিত করে। যেনো তেনো ভাবে করলে হবে না! স্থাপনা, প্রদর্শন, এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ক একটা গাইডলাইন করে দিতে হবে সরকারকে! সেই গাইডলাইন অনুসরন করে মাল্টিপ্লেক্স বানাতে হবে এবং চালাতে হবে! এর হেরফের হলেই অর্থ সাহায্য বাতিল! জেলা শহরে চালু সিঙ্গেল স্ক্রিণগুলোর বাইরে থেকেও যদি কোন উদ্যোক্তা মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণ করতে চান, সরকারের উচিত তাকেও এই প্রণোদনা প্যাকেজের জন্য আবেদনের সুযোগ দেয়া! 

সিনেমাকে বাঁচিয়ে রাখা বিষয়ক অনেক ভাঙ্গা রেকর্ড না বাজিয়ে স্রেফ এই কাজটা করেন! দেখবেন পাঁচ বছর পর এর প্রভাবটা কী পড়ে! 

করবেন দয়া করে এই কাজটা?'

ব্রেকিংনিউজ/অমৃ

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি