ঘুরে দাঁড়াচ্ছে রাঙামাটির পর্যটন খাত

রাঙামাটি প্রতিনিধি
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৫:৫৮

ঘুরে দাঁড়াচ্ছে রাঙামাটির পর্যটন খাত

এক এক করে রাঙামাটির পর্যটন কেন্দ্রগুলো খুলে দেয়ার সাথে সাথে পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠছে রাঙামাটি।  প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটক আসতে শুরু করছে পাহাড়ি জেলাটির সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে। এতে জেলায় বিগত কয়েক মাসের কোটি কোটি টাকার ক্ষতি কাটিয়ে আবারো সামনে দিকে পর্যটন শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা পাচ্ছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা।

লেক পাহাড় বেষ্টিত শহর রাঙামাটি ও ঘন সাদা মেষের ডাকা সাজেক দেখতে প্রতিদিনই রাঙামাটিতে পর্যটকের আনাগোনা থাকতো উল্লেখ্যযোগ্য হারে। যার দরুণ জেলার হোটেল মোটেল মালিক থেকে সিএনজি চালক, বোর্ট চালকসহ ১৭টিরও বেশি পেশা খাতের মানুষের জীবনযাত্রার সাথে পর্যটক আসাযাওয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠে যুগ যুগ ধরে। হঠ্যাৎ ১৮ মার্চ রাত থেকে নভেল করোনা ভাইরাসের কারণে রাঙামাটির জেলা প্রশাসন বন্ধ করে দেয় রাঙামাটির সকল পর্যটন স্পট। তারপর দিনই বিদায় করে দেওয়া হয় সকল হোটেল মোটেলে অবস্থানরত পর্যটকদের।
 
আর তখন থেকেই অনিশ্চিত ক্ষতির হার কেমন হয় তার হিসাব নিকাশ করতে করতে কেটে যায় চারটি মাস। তারপরই আকস্মিক ঘোষণায় খুলে দেয়া হয় হোটেল মোটেল। কিন্তু পর্যটন স্পট না খুলায় হোটেল মোটেল খুলে ব্যবসায়ীদের কোন লাভ হয়নি। ৩রা আগস্ট প্রথম রাঙামাটি পর্যটন করর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনায় সিম্বল অব রাঙামাটি খ্যাত পর্যটন ঝুলন্ত ব্রিজ খুলে দেয়া হয় বেশ কিছু স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্ত সাপেক্ষে। আর তখন থেকেই পর্যটকের আনাগোনায় সচল হতে শুরু করে পর্যটন ব্যবসায়ের সাথে সংশ্লিষ্টরা।

পর্যটন ব্যবসায়ীদের এই দুয়ার আরো প্রসারিত হয় ১লা সেপ্টেম্বর থেকে ৭শর্তে সাজেক ভ্যালি খোলার সিদ্ধান্ত আসার পর। এছাড়াও ৩রা আগস্টের পর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এক এক করে খুলতে শুরু করে রাঙামাটির পর্যটকদের জন্য আকর্ষনীয় স্পট পলওয়েল পার্ক, রাঙামাটি পার্ক, সুবলং ঝর্ণাসহ বেসরকারি মালিকানায় গড়ে উঠা প্রায় সব পর্যটন স্পট। তবে স্থানীয়দের ঘুরাফেরার জন্য জনপ্রিয় ডিসি বাংলো পার্ক এখনো খুলে দেয়া হয়নি।

রাঙামাটির যেসব পর্যটন স্পট খুলে দেয়া হয়েছে তার প্রতিটিতে বিশেষ করে সাপ্তাহিক ছুটিরদিনগুলোতে স্থানীয় ও দেশের নানা প্রান্ত থেকে আসা পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত থাকে। রাঙামাটি পার্কে যেমন থাকে শিশুদের ভিড়, তেমনি ভাবে ঝুলন্ত ব্রিজে থাকে তারুণের উচ্ছ্বাস। আর একটু পাহাড়ি ঝর্ণার পানিতে নিজেকে ভিজেয়ে নিতে সুবলং ঝর্ণায় প্রতিদিন ভীর করে সব বয়সী মানুষ। পর্যটকের এই পদচারণায় খুশি রাঙামাটির পর্যটন ব্যবসায়ের সাথে জড়িত সব পেশাজীবীরা। 

রাঙামাটির ট্যুরিস্ট বোর্ট ব্যবসায়ী প্রমথ কর্মকার জানিয়েছেন, গত চারটি মাস পর্যটক বিহীন রাঙামাটিতে আমাদের বোর্টগুলো ঘাটে বাধা ছিল। কিন্তু পর্যটন স্পটগুলো এক এক করে খুলে দেয়ার সাথে সাথে রাঙামাটিতে পর্যটকের আনাগোনা শুরু হয়েছে। যার কারণে আমরা আমাদের ট্যুরিস্ট বোর্টগুলো আবার ভাড়াদিতে শুরু করেছি। এতে বর্তমানে কিছুটা হলেও আমরা স্বস্থিতে আছি এবং কর্মচঞ্চল হয়ে উঠেছি।

সিএনজি চালক সুলতান জানিয়েছেন, পর্যটন স্পটগুলো খুলে দেয়ার পর থেকে রাঙামাটিতে বেশ কিছু পর্যটক আসতে শুরু করেছে। যার কারণে আমাদের আবারো আগের মত আয়ের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

সিলেট থেকে রাঙামাটিকে ঘুরতে আসা পর্যটক আব্দুলা হাসেম জানিয়েছেন, করোনার আগের রাঙামাটিতে ঘুরতে আসার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে পর্যটন স্পটগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আর আসা সম্ভব হয়নি। তাই পর্যটন স্পটগুলো খোলার খবর পেয়ে, দীর্ঘদিনের বন্ধিদর্শা কাটিয়ে উঠতে রাঙামাটিতে চলে এসেছি।
সাজেক কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি সুপর্ণ দেব বমর্ণ জানিয়েছেন, দীর্ঘ ৫মাস বন্ধ থাকার পর কিভাবে ক্ষতি পুসিয়ে চাঙ্গা হওয়া যায় সে বিষয়ে ভাবছে কটেজ মালিকরা। এখন বেশকিছু পর্যটক আসতে শুরু করেছে। আশা করছি সামনে ছুটিগুলোতে পর্যটকের ঢল নামবে। ইতি মধ্যে সাজেকে সরকারি তিনটা ও বেসরকারি ৮৩টা কটেজের প্রায় সবগুলোই খোলা হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে।

রাঙামাটি পর্যটন কপোরেশনের ব্যবস্থাপক সৃজন কান্তি বড়ুয়া জানিয়েছেন, রাঙামাটির পর্যটন করর্পোরেশনের করোনার বন্ধ সময়টাতে প্রায় দেড় কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে। বর্তমানে আমাদের পর্যটন স্পট ও মোটেলে কিছু কিছু পর্যটক আসতে শুরু করেছে। তবে তা তেমন বেশি না। আশা করছি আমরা ভবিষ্যৎতে করোনা পরিস্থিতি আরো স্বাভাবিক হলে পর্যটকের হার বাড়বে এবং আমরা ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারবো। 

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি