ফার্মেসিগুলোতে মিলছে না হ্যান্ড স্যানিটাইজার

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
২৯ মার্চ ২০২০, রবিবার
প্রকাশিত: ০৪:২৫

ফার্মেসিগুলোতে মিলছে না হ্যান্ড স্যানিটাইজার

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে ওষুধের ফার্মেসিগুলোতে এক সপ্তাহ ধরে জ্বর, সর্দি ও কাশির ওষুধ সংকট দেখা দিয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে প্যারাসিটামল, এজিথ্রোমাইসিন, ক্লোরোকুইন, ফেনাডিন, এন্টিহিস্টমিন এবং সিভিটসহ এসব ওষুধ মার্কেটে অপ্রতুল। কোম্পানির কাছে ওষুধ অর্ডার করেও পাচ্ছে না ফার্মেসিগুলো। একই সঙ্গে সার্জিক্যাল মাক্স, হ্যান্ড গ্লাভস, হ্যাক্সিসল, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, স্যাভলনসহ জীবাণুনাশক এ মালামালগুলোরও ব্যাপক সংকট রয়েছে। বিশেষ করে জীবানুনাশুক হ্যাক্সসল একেবারেই পাওয়া যাচ্ছে না।

এ সংকটের কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা জানান, লোকজন প্রয়োজনের তুলনায় বেশি বেশি কিনে নেওয়ায় এ সংকট দেখা দিয়েছে।

শনিবার সরেজমিনে আরিচা ঘাটের বিভিন্ন ওষুধের দোকান ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতারা উক্ত ওষুধগুলো ক্রয় করতে এসে ঘুরে যাচ্ছেন। বেশির ভাগ লোক ওষুধের দোকানে এসে মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, হ্যাস্কসল, হ্যান্ড স্যানিটাইজার স্যাভলনসহ জীবাণুনাশক সামগ্রীর খোঁজ করছেন। কিন্ত ব্যাবসায়ীরা চাহিদানুযায়ী ক্রেতাদেরকে দিতে পারছেন না। একই সমস্যা ওষুধের বেলাতেও। সাধারণ সর্দি, জ্বর ও কাশির ওষুধ প্যারাসিটামল, এপিথ্রোমাইসিন, ক্লোরোকুইন এ জাতীয় ওষুধ দিতে পারছেন না অনেকেই। কিছু কিছু দোকানে প্যারাসিটামল থাকলেও এজিথ্রোমাইসিন ও ক্লোরোকুইন নেই।

আরিচা ঘাটের ইত্যাদি ফার্মেসি’র মালিক মো.আইনদ্দিন বলেন, করোনাভাইরাস বাংলাদেশে চিহ্নিত হবার পর থেকেই শিবালয়ের মার্কেটগুলোতে মাক্স, হ্যান্ড গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, স্যাভলনসহ করোনা প্রতিরোধের জীবাণুনাশকগুলো কেনার ধুম পড়ে যায়। এছাড়া কয়েকদিনের মধ্যেই এ জিনিসগুলো সাপ্লাই বন্ধ হয়ে যায়। এখন কোম্পানির কাছে অর্ডার দিয়েও তা পাওয়া যাচ্ছে না। যার ফলে ক্রেতারা এসে ফিরে যাচ্ছেন। গত এক সপ্তাহ আগে থেকেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার, গ্লাভস, মাস্ক মার্কেটে সংকট দেখা দেয়। আমার দোকানে আগের রাখা ৭০ পিস হ্যাক্সসল এক দিনেই বিক্রি হয়ে যায়। এরপর অর্ডার দিলে কোম্পানি আর দিচ্ছে না। বর্তমানে নরমাল প্যারাসিটামল, এজিথ্রোমাইসিন,ক্লোরোকুইন, এন্টিহিসটামিন, ফেনাডিন এবং সিভিট টেবলেট ও সিরাপ সংকট দেখা দিয়েছে। আর ক্রেতারা এসব ওষুধগুলোই খোঁজ করছেন বেশি। কোম্পানি প্রতিনিধির কাছে অর্ডার দিলেও তারা বলেন সাপ্লাই নাই।

নিবারণ ফার্মেসির মালিক নিলিমেস সাহা বলেন, সাধারণ সর্দি, জ্বরের ওষুধ কিছু কিছু পাওয়া গেলেও জীবানুনাশক হ্যাক্সসল, স্যাবলনসহ হ্যান্ডস্যানিটাইজার জাতীয় জিনিসগুলো গত ৮/১০ দিন ধরে একেবারেই পাওয়া যাচ্ছে না। কোম্পানিকে অর্ডার দিলে বলে নাই। যে কারণে করোনা আতংকের মধ্যে আমরা মানুষকে দিতে পারছি না। আমাদের কাছে যা ছিল তা অনেক আগেই শেষ হয়ে যায়। এ্যারোস্টফার্মা ফার্মাসিটিক্যালের প্রতিনিধি জামাল মিয়া বলেন,
বর্তমানে মার্কেটগুলোতে জীবানুনাশক ওষুধসহ হ্যান্ডসানিটাইজারের চাহিদা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। কোম্পানিই চাহিদানুযায়ী উৎপাদন করতে পারছে না। ফলে মার্কেটের চাহিদা পুরণ করা কষ্টকর হয়ে পড়েছে। তবে আমরা প্রতি দোকানিকে বড় সাইজের একটি করে দেয়ার চেষ্টা করছি।

তবে শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রেজাউল হক জানান, বর্তমানে হাসপাতালে হ্যান্ডগ্লাবস এবং জীবানুনাশক হ্যাক্সিসলের কোন সংকট নেই। সাধারণ সর্দি, জ্বরের ওষূধগুলোও পর্যাপ্ত রয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি