সময় খারাপ যাচ্ছে, সংগ্রাম এখনও শেষ হয়নি

এস এম আতিক হাসান
২৮ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ১১:৫৮ আপডেট: ০৬:৪৫

সময় খারাপ যাচ্ছে, সংগ্রাম এখনও শেষ হয়নি

২৭ বছর পর কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে নতুন নেতৃত্ব পেয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। সেই নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছিলেন শ্যামল। তার পুরো নাম ইকবাল হোসেন শ্যামল। জন্ম ১৯৮৮ সালের ১৫ এপ্রিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফারসি ভাষা ও সাহিত্যে ২০০৯ সালে অনার্স এবং ২০১০ সালে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। বর্তমানে তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ে তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনায় অধ্যয়নরত। দেশের লাখো শিক্ষার্থীর এ প্রতিনিধির গ্রামের বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরায়। পিতা মৃত মো.গিয়াস উদ্দীন পরিবার-পরিকল্পনা পরিদর্শক হিসেবে নরসিংদীর রায়পুরায় কর্মরত ছিলেন। মা দেলোয়ারা বেগম রায়পুরা ১ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। 

ব্যক্তিজীবনে অবিবাহিত শ্যামল, রায়পুরা আর কে আর এম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৩ সালে এসএসসি, নটরডেম কলেজ থেকে ২০০৫ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতকার্য হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ২০০৫-০৬ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রদলের মাধ্যমে রাজনীতিতে পা রাখেন। ঢাবি ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক মামলা ঝুলছে তার ওপর। ২০১৩ সালের ২৮ মে গ্রেফতার হয়েছিলেন ছাত্রদলের এ শীর্ষ নেতা। 

সম্প্রতি দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজপোর্টাল ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি’র সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে যুক্ত হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র ও ছাত্রদলের অন্যতম কাণ্ডারি শ্যামল। তার কথায় উঠে এসেছে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, বিএনপির বর্তমান ও ভবিষ্যৎ রাজনীতির নানাদিকসহ প্রাসঙ্গিক বিভিন্ন বিষয়। সাক্ষাৎকারে যুক্ত ছিলেন ব্রেকিংনিউজের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট এস এম আতিক হাসান ।  ছবি তুলেছেন আলোকচিত্রী সালেকুজ্জামান রাজীব।

ব্রেকিংনিউজ : আপনি কেমন আছেন?

ইকবাল হোসেন শ্যামল : যেখানে সাধারণ মানুষ, রাষ্ট্র, ছাত্রসমাজ কেউ ভালো নেই সেখানে ব্যক্তি শ্যামল ভালো থাকার কোনও সুযোগ নেই।

ব্রেকিংনিউজ : দেশের চলমান ছাত্র রাজনীতি নিয়ে আপনার পর্যবেক্ষণ কী?

শ্যামল : বর্তমান সময়ের যে ছাত্র রাজনীতি..., আমি বলবো ছাত্র রাজনীতির একটি গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস আছে। কিন্তু পরাশক্তি দেশগুলো ছাত্র রাজনীতি তাদের জন্য হুমকি মনে করে, তাদের সাম্রাজ্যবাদী মনোভাব চরিতার্থ করার জন্য। প্রতিবেশী দেশগুলোও বাংলাদেশে ছাত্র রাজনীতি যাতে না হয় সেজন্য দেশের বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনগুলোকে বিভিন্নভাবে বিভ্রান্তিতে ফেলার চেষ্টা করে, যাতে সাধারণ জনগণের মনে ছাত্র রাজনীতির বিরুদ্ধে একটা কনসেপ্ট তৈরি হয়। এ রাষ্ট্রের জন্মের সময় ছাত্র রাজনীতির খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। ‘৭১-এর পর বাংলাদেশ যখন স্বৈরাচার এরশাদের কবলে পড়ে তখন এই ছাত্ররাই স্বৈরতান্ত্রিক রাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশকে একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল। দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছিল। ‘৭১ পরবর্তী সময়ে এক ভয়াবহ সময় পার করেছে এই রাষ্ট্র। গণতন্ত্রের মূল্যবোধকে সামনে রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এ দেশটা স্বাধীন হয়েছিল। কিন্তু স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে ১৯৭৫ সালের ২৫ জানুয়ারি ২০ মিনিটের একটি পার্লামেন্ট অধিবেশনে স্বাধীনতার মূলমন্ত্র গণতন্ত্রকে ধ্বংস করা হয়েছিল।

তারই ধারাবাহিকতায় আজকে যে নব্য ফ্যাসিস্ট সরকার এই সরকারের আমলেও সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা খুবই ভীতিকর অবস্থায় আছে। ছাত্র-ছাত্রীদের বাক-স্বাধীনতা, মুক্তচিন্তার স্বাধীনতা আজ অনুপস্থিত। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের রাম রাজত্বে পরিণত হয়েছে। সিলেটের এমসি কলেজসহ সারাদেশেই প্রতিনিয়ত ছাত্রলীগকে কেন্দ্র করে একটা না একটা নিউজ আসছে। যা রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের রূপ ধারণ করেছে। রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনীকে ‘সন্ত্রাসী বাহিনী’ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। যারা সরকারদলীয় তারা বিভিন্নভাবে সাধারণ জনগণকে জুলুম-নিপীড়ন করছে, কণ্ঠরোধ করছে। ছাত্রছাত্রীদের সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল তার জায়গা থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্র-ছাত্রীদের বাকস্বাধীনতা প্রতিষ্ঠা, শিক্ষার মান উন্নত করা এবং সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের যে চাহিদা সেগুলো নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করছি আমরা। সেক্ষেত্রে আমাদের অনেক চড়াই-উৎরাই পার করতে হচ্ছে। এজন্য সাংগঠনিকভাবেও অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি, তারপরও চেষ্টার কোনও কমতি নেই আমাদের। আমি ছাত্রদল করি, তার আগে আমি একজন ছাত্র। যতক্ষণ না পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের অধিকার ফিরে পাবে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো।

ব্রেকিংনিউজ : শিক্ষার্থীদের মানোন্নয়নের জন্য কী কী করণীয় বলে আপনি মনে করেন?

শ্যামল : ছাত্র সংগঠনগুলোকে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের মানোন্নয়ন করার জন্য কাজ করা উচিৎ। এরমধ্যে জনগণেরও কিছু আকাঙ্ক্ষা আছে। এই আকাঙ্ক্ষাগুলো যদি আমরা পূরণ করতে পারি সেক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের গুণগত মানোন্নয়ন হবে বলে আমি মনে করি।

ব্রেকিংনিউজ : ছাত্রদলের ১৩ জন নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। দেশের অন্যতম বৃহৎ এই ছাত্র সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এই ১৩ জনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত আছে কিনা?

শ্যামল : আমরা যারা সংগঠন করি কেউই সংগঠনের চেয়ে বড় কিছু না। আমরা সংগঠনের কর্মী। সংগঠন আমাকে মূল্যায়িত করেছে। আমি সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাছে মূল্যায়িত হচ্ছি। আমি সংগঠনের চেয়ে বড় না। অতএব সবাইকে সংগঠনের নিয়মে চলা উচিত। আর যারা বহিষ্কার হয়েছেন তারা আমাদের অগ্রজ। তাদের হাত ধরেই আমাদের এ সংগঠনে অংশগ্রহণ। যাদের কথা বলছেন তাদের অনেকের সাথে প্রত্যক্ষভাবে আমি রাজনীতি করেছি। আমি যে হলের ছাত্র সেই হলের প্রেসিডেন্টও ওই বহিষ্কারের তালিকায় আছেন। তাদের সাথে থেকেই মিছিল মিটিং করেছি। তাদের হাত ধরেই জাতীয়তাবাদের শিক্ষা নিই। আমার জায়গা থেকে আমি বলবো, তাদের অতীতের যে কর্মকাণ্ড সেখান থেকে তারা বাস্তবমুখি রাজনীতিতে ফিরে আসবে, বাস্তবধর্মী অবস্থানে থেকেই দেশনায়ক তারেক রহমানের কাছে তারা আবেদন-নিবেদন করবে যে, তাদেরকে যেন স্বাভাবিক ধারায় ফিরিয়ে আনা হয়। আর বর্তমান পরিস্থিতিতে কাউকে দূরে রাখার প্রয়োজনীয়তা আমি মনে করি না। দেশে এখন গণতন্ত্র নেই, একটা জাতীয় ঐক্য দরকার, সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে মিছিলে মিটিং-এ অংশগ্রহণ করতে হবে। আমরাও আমাদের সাংগঠনিক অভিভাবকের কাছে সুপারিশ করবো, যেন তিনি তাদের প্রতি সদয় হন।’

ব্রেকিংনিউজ : বিএনপির রাজনীতিতে ছাত্রদল কোনও ভূমিকা রাখতে পারছে কিনা?

শ্যামল : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সাধারণ ছাত্রদের সংগঠন। আমাদের আদর্শের জনক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। তিনি আমাদের সংগঠনকে জন্ম দিয়েছেন। পরবর্তীতে স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে বেগম খালেদা জিয়ার প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে বিকশিত হয়েছিল ছাত্রদল। বর্তমানে দেশের রাজনীতিতে এক ভীতিকর পরিবেশ চলছে। এই সময় দেশনায়ক তারেক রহমানের প্রত্যক্ষ দিকনির্দেশনায় সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে ছাত্রদল। সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের প্রত্যাশার জায়গা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। সব সময় সর্বোচ্চ সমর্থন যোগানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে জাতীয়তাবাদী পরিবারের ভ্যানগার্ড হিসেবে। মানুষের অধিকার আদায়ের যে সংগ্রাম সেই সংগ্রামে নিজেদের বিলিয়ে দেয়ায় সার্বক্ষণিক সচেষ্ট ছাত্রদল।

ব্রেকিংনিউজ : যারা বলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া তাঁর আশেপাশে যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি করতে পারেননি, তাদের উদ্দেশ্যে কী বলবেন?

শ্যামল : আমরা একটা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এখনও পর্যন্ত কোনও ফলাফল নির্ধারণ হয়নি। জাতীয়তাবাদী পরিবার অনেক হামলা-মামলা গুম-খুনের শিকার হয়েছে। তারপরও তারা জনগণের ভালোবাসায় এখনও টিকে আছে। জনগণের অধিকার আদায়ে মাঠে আছে। আপনি যেটা বলছেন এটা ঠিক না, এগুলো মুখরোচক বক্তব্য। যেহেতু আমরা একটু খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি সেজন্য আমাদের নিয়ে সমালোচনা একটু বেশিই হবে। খারাপ সময় যাচ্ছে, কিন্তু আমি বলি- সংগ্রাম এখনও শেষ হয়নি। বিশ্বায়নের এই যুগে এই কথাগুলো খুবই বেমানান। যারা এই কথাগুলো বলছেন তারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বলছেন। বেগম জিয়া অবশ্যই যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি করেছেন।

ব্রেকিংনিউজ : অনেকেই বলছেন, লন্ডন থেকে তারেক রহমান দেশ পরিচালনা করতে পারছেন না, তাদের উদ্দশ্যে কী বলবেন?

শ্যামল : দেশনায়ক তারেক রহমান জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। তাকে ঘিরেই আন্দোলন বেগবান হচ্ছে। ঘুরে দাঁড়াচ্ছে জাতীয়তাবাদী পরিবারের সৈনিকেরা। সাম্রাজ্যবাদী শক্তির একটি কুচক্রী মহল উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে। আমি এটুকুই বলবো, ইরান বিপ্লবের নেতা খোমেনী, তার নেতৃত্বেই ইরানে বিপ্লব ঘটেছিল। ইরানে যখন বিপ্লব ঘটে তখন কিন্তু খোমেনী ফ্রান্সে ছিলেন। ফ্রান্স থেকেই কিন্তু তিনি নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। এরকম আরও অনেক নজির আছে। অথচ ওই সময় আর বর্তমান সময়ের মধ্যে অনেক পার্থক্য। জ্ঞান-বিজ্ঞান-প্রযুক্তির অনেক আপডেট হয়েছে। সে সময়ে টেলিমিডিয়া ছিল না। বর্তমানে আমাদের নেতা কিন্তু আমাদের সাথে সবসময় যোগাযোগ করছেন। তিনি সবসময় আমাদের সাথে কথা বলছেন। ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলছেন। আমাদেরকে দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। দেশের আপামর সাধারণ জনগণ ও জাতীয়তাবাদী পরিবার তাকে নিয়ে কিন্তু জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখে। আর এই কারণেই কিছু কুচক্রী মহল তার নামে প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছে। আর এটা নিয়ে আমাদের জাতীয়তাবাদী পরিবার শঙ্কিত নয়। আমরা জানি, তিনি সঠিকভাবেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন, দল পুনর্গঠন করছেন। প্রতিটি কলেজে কর্মসূচি করার জন্য আমাদের সংগঠন ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না যে, দূর থেকে নেতৃত্ব দেয়া যায় না। এগুলো প্রোপাগান্ডা এবং নেতাকর্মীদের বিভ্রান্তি করার জন্য এসব প্রোপাগান্ডা ছড়ানো হচ্ছে।

ব্রেকিংনিউজ : ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি কবে নাগাদ হবে?

শ্যামল : আমরা দীর্ঘ ২৭ বছর পর দেশনায়ক তারেক রহমানের তত্ত্বাবধানে কাউন্সিলের মাধ্যমে একটি নির্বাচিত কমিটি পেয়েছি। সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সহাবস্থানের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে আমাদের কিছুদিন সময় লেগেছে। আমরা দুই মাসের মধ্যেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আংশিক আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করি। পরবর্তীতে আমাদের স্ট্র্যাটেজি ছিল যেহেতু ১৭/১৮ বছর আমাদের উপজেলা কমিটি ছিল না সেই কমিটিগুলোকে আমরা পুনর্গঠন করার কাজ হাতে নেই। সেই পুনর্গঠন প্রক্রিয়া আলহামদুলিল্লাহ আমরা শেষ করেছি প্রায়। শতকরা ৯৫ ভাগ আমাদের কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। পরবর্তী সময়ে আমাদের ঢাকার যে ইউনিটগুলো সেগুলো আমাদের কাছে জমা হয়েছে। সেই ইউনিট কমিটিগুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি। আশা করি, স্বল্প সময়ের মধ্যে ঢাকার ইউনিটগুলি বিশেষ করে ঢাকা মহানগরের ইউনিটগুলি এবং প্রতিষ্ঠানগুলি সহসায় প্রকাশ করতে পারবো। ঢাকার ইউনিট কমিটিগুলির পরপরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় কমিটি নিয়ে কাজ করবো। পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে আমরা বেশ কিছু কাজ করেছি, আমাদের কিছু কাজ এগিয়ে আছে। ঢাকার কমিটি হলেই আমরা বিশ্ববিদ্যালয় ও কেন্দ্রীয় কমিটির কাজ করবো, ইনশাল্লাহ্।’

ব্রেকিংনিউজ : সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

শ্যামল : আপনাকে এবং ব্রেকিংনিউজ পরিবারকেও ধন্যবাদ।

ব্রেকিংনিউজ/এএইচ/এমআর

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি