বরিশালের ১ থেকে ৬ আসনে লড়বেন যারা

জাতীয় ডেস্ক
১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০৪:২৭ আপডেট: ০৮:২৭

বরিশালের ১ থেকে ৬ আসনে লড়বেন যারা

বরিশাল জেলায় মোট ৬টি সংসদীয় আসন। এ আসন থেকে মনোনয়নপত্র জমা দেয়া ৫২ জনের মধ্যে ৩ জন যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়েন ও ১১ জন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করায় সর্বশেষ টিকে যায় ৩৮ জন প্রার্থী।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো বরিশালের ১ থেকে ৬ আসন পর্যন্ত ভোটের হালচাল।
  
বরিশাল-১
বরিশালের আগৈলঝাড়া ও গৌরনদী উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-১ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১১৯ নং আসন।বরিশাল -১ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৫৭ হাজার ২২০ জন ভোটার। মোট ভোটারের মধ্যে ১ লাখ ২৯ হাজার ১৭ জন পুরুষ ও ১ লাখ ২৮ হাজার ২০৩ জন নারী ভোটার।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-১ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৪ জন প্রার্থী। আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এবং  বিএনপির প্রার্থী জহিরউদ্দিন স্বপন এ আসনের শক্তিশালী প্রার্থী। এছাড়া এ আসন থেকে আছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. রাসেল সরদার ও জাকের পার্টির মো. বাদশা মিয়া লড়বে নিজেদের দলীয় প্রতীকে।
 
 প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ। তিনি জন্মগ্রহণ করেন ১৯৪৪ সালে। তার পিতা প্রাক্তন আওয়ামী লীগ নেতা ও পানিসম্পদ মন্ত্রী আব্দুর রউফ সেরনিয়াবাত। তিনি শিখ হাসিনার ফুফাতো ভাই।
বিএনপির প্রার্থী জহিরউদ্দিন স্বপন। তিনি এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। এক সময়ের বাম নেতা এবং প্রভাবশালী সংস্কারপন্থি নেতা হিসাবে পরিচিত।
 
বরিশাল-১ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে তোফায়েল আহমেদ,  ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) পক্ষে ধানের শীর্ষ প্রতীকে মোশাররফ হোসেন শাহজাহান, ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে সুনিল কুমার গুপ্ত, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে আবুল হাসনাত  আবদুল্লাহ, ২০০১ সালে ধানের শীষ প্রতীকে জহির উদ্দিন স্বপন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে তালুকদার মোঃ ইউনুস, ২০১৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ।
নোট:  ২০১৪ সালে বিরোধীদলগুলি সাধারণ নির্বাচন বর্জন করে তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিলে আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।
 

বরিশাল-২
বরিশালের উজিরপুর উপজেলা ও বানারীপাড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-২ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১২০ নং আসন।বরিশাল -২ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এ আসনের সীমানা পুনরায় বদল হয়েছিল।
 
ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ৩ লাখ ২ হাজার ৫৭১ জন ভোটার।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-২ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৭ জন প্রার্থী। আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শাহে আলম এবং বিএনপির প্রার্থী সরদার সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু এ আসনের শক্তিশালী প্রার্থী। এছাড়া এ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন, জাতীয় পার্টির মো. মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, স্বতন্ত্র মো. আনিছুজ্জামান, ওয়ার্কার্স পার্টির মো, জহুরুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন আন্দোলন বাংলাদেশের মো. নেছারউদ্দিন ও এনপিপির সাহেব আলী।
 
প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শাহে আলম।সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর বিচারের দাবিতে যে কয়েকজন ছাত্র বানারীপাড়ায় প্রতিবাদ করেছিলেন শাহে আলমই তাদের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।
বিএনপির প্রার্থী সরদার সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু। বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য ও বানারীপাড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি এস সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু।
 
 বরিশাল-২ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে নজরুল ইসলাম, ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে সৈয়দ আজিজুল হক, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেনন, ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকে গোলাম ফারুক অভি, ২০০১ সালে ধানের শীষ প্রতীকে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ২০০৮ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনিরুল ইসলাম, ২০১৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে তালুকদা ইউনুস।
 

বরিশাল-৩
বরিশালের মুলাদী উপজেলা ও বাবুগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-৩ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১২১ নং আসন।বরিশাল -৩ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এ আসনের সীমানা পুনরায় বদল হয়েছিল।
 
ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৫৩ হাজার ৬৪৯ জন ভোটার।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৩ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৬ জন প্রার্থী। বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন এ আসনের শক্তিশালী প্রার্থী। এছাড়া এ আসন থেকে আছে জাতীয় পার্টির গোলাম কিবরিয়া টিপু, ওয়ার্কার্স পার্টির টিপু সুলতান, স্বতন্ত্র আতিকুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. সিরাজুল ইসলাম ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের মো. এনায়েত কবির।
 
প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। তিনি দীর্ঘ দিন বিএনপির কেন্দ্রীয় রাজনীতির সাথে যু্ক্ত এবং বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী।
জাতীয় পার্টির গোলাম কিবরিয়া টিপু। তিনি ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশল-৩ থেকে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। 
 
বরিশাল-৩ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে মোতাহার উদ্দিন,  ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মোঃ নজরুল ইসলাম,  ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে মোঃ আব্দুল বারেক, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে মোশাররফ হোসেন মঞ্জু, ১৯৯৬ সালে আবারো ধানের শীষ প্রতীকে মোশাররফ হোসেন মঞ্জু, ২০০১ সালে ধানের শীষ প্রতীকে মোশাররফ হোসেন মঞ্জু, ২০০৮ সালের নির্বাচনে গোলাম কিবরিয়া টিপু জাতীয় পার্টি থেকে এবং ২০১৪ সালে টিপু সুলতান ওয়ার্কার্স পার্টি থেকে।
 

বরিশাল-৪
বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা ও হিজলা উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-৪ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১২২ নং আসন।বরিশাল -৪ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এ আসনের সীমানা পুনরায় বদল হয়েছিল।
 
ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ৩ লাখ ২৩ হাজার ৫৬৫ জন ভোটার।
 
প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের পংকজ দেবনাথ। তিনি বরিশাল-৪ এর সংসদ সদস্য। সাবেক বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন তিনি।
ধানের শীষ প্রতীকে লড়বেন জেএম নুরুর রহমান জাহাঙ্গীর।তিনি নাগরিক ঐক্যর প্রার্থী।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৪ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৭ জন প্রার্থী। আওয়ামী লীগের পংকজ দেবনাথ, বিএনপির প্রার্থী(নাগরিক ঐক্য) জেএম নুরুর রহমান জাহাঙ্গীর, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সৈয়দ মো. নুরুল করিম, ইসলামী ঐক্যজোটের সাইফুল্লাহ, বাংলাদেশে খেলাফাত মজলিসের রুহুল আমীন, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের(বিএনএফ) এনামুল হক এবং বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মাহবুবুল আলম।
 
বরিশাল-৪ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন,  ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল থেকে সিদ্দিকুর রহমান, ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে মাঈদুল ইসলাম, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মহিউদ্দিন আহমেদ, ১৯৯৬ সালে ধানের শীষ প্রতীকে শাহ এম আবুল হোসেন, ২০০১ সালে আবারো ধানের শীষ প্রতীকে শাহ এম আবুল হোসেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে মোঃ মেজবাউদ্দীন ফরহাদ এবং ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের পংকজ নাথ।
 
 
 
বরিশাল-৫
 
বরিশাল জেলার বরিশাল সিটি কর্পোরেশন ও বরিশাল সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-৫ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১২৩ নং আসন।বরিশাল -৫ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ৩ লাখ ৯৭ হাজার ২৩০ জন ভোটার।
 
প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:
আওয়ামী লীগের কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুব শামীম। রাজনৈতিক ক্যারিয়ার ছাড়াই প্রথমবার তিনি নির্বাচনে অংশ নেন ২০০৮ সালে। পরিসংখ্যানের হিসাবে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের জাহিদ ফারুক শামীমের প্রাপ্ত ভোট সবার কাছে ছিল বিস্ময়।
 
বিএনপির অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার ভোটের ফলাফল বিবেচনায় মজিবর রহমান সরোয়ার সব সময় প্রভাবশালী প্রার্থী। তিনি এ পর্যন্ত চারবার এমপি ও একবার সিটি মেয়র নির্বাচিত হন।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৫ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৭ জন প্রার্থী। আওয়ামী লীগের কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুব শামীম, বিএনপির অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুফতি সৈয়দ মো. ফয়জুল করিম, জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট একেএম মুর্তজা আবেদীন, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (মতিন) এইচএম মাসুম বিল্লাহ, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির অধ্যাপক আবদুস সাত্তার এবং এনপিপির শামীমা নাসরিন।
 
 
বরিশাল-৫ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে আবদুল মান্নান হাওলাদার,  ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল থেকে সুনিল কুমার গুপ্ত, ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে এম মতিউর রহমান, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে আব্দুর রহমান বিশ্বাস, ১৯৯৬ সালে ধানের শীষ প্রতীকে নাসিম বিশ্বাস, ২০০১ সালে আবারো ধানের শীষ প্রতীকে মজিবুর রহমান সরওয়ার  এবং ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের শওকত হোসেন হিরন।
 

বরিশাল-৬
বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে বরিশাল-৬ আসন। এটি জাতীয় সংসদের ১২৪ নং আসন।বরিশাল -৬ নির্বাচনী এলাকা ১৯৭৩ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম নির্বাচনের সময় গঠিত হয়েছিল।
 
ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫২৫ জন ভোটার।
 
প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:
এ আসনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বীদের একজন বিএনপির প্রার্থী আবুল হোসেন খান। তিনি উপজেলা বিএনপির সভাপতি। বরিশাল -৬ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে ২০০৮ সালের নির্বাচনে তিনি পরাজিত হন।
এ আসনের আরেক শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির নাসরিন জাহান রত্না আমীন। তিনি জাতীয় পার্টির একজন রাজনীতিক এবং বাংলাদেশের দশম জাতীয় সংসদের একজন সংসদ সদস্য।
 
মোট প্রতিদ্বন্দ্বী:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৬ থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মোট ৭ জন প্রার্থী। জাতীয় পার্টির নাসরিন জাহান রত্না আমীন, বিএনপির প্রার্থী আবুল হোসেন খান, জাতীয় পার্টির জেপি খন্দকার মাহতাব উদ্দিন, জাসদ-ইনু মো. মোহসীন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. নুরুল ইসলাম আল আমিন, জেএসডির একেএম নুরুল আসলাম এবং স্বতন্ত্র মো. আলী তালুকদার ফারুক।
 
বরিশাল-৬ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা প্রতীকে মোকিম হোসাইন হাওলাদার, ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল থেকে সিরাজুল হক মিন্টু, ১৯৮৬ –তে জাতীয় পার্টির পক্ষে লাঙ্গল প্রতীকে এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে ইউনুস খান, ১৯৯৬ সালে নৌকা প্রতীকে সৈয়দ মাসুদ রেজা, ২০০১ সালে আবারো ধানের শীষ প্রতীকে আবুল হোসেন খান, ২০০৮ সালের নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার এবং ২০১৪ সালে জাতীয় পার্টির নাসরিন জাহান রত্না।

ব্রেকিংনিউজ/এসএসআর

bnbd-ads
breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি