বগুড়ার ৭টি আসনে কে কার প্রতিদ্বন্দ্বী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৯:৫৯

বগুড়ার ৭টি আসনে কে কার প্রতিদ্বন্দ্বী

উত্তরাঞ্জলের অন্যতম জেলা বগুড়ার সংসদীয় আসন সংখ্যা ৭টি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসনগুলোতে ৪৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। 

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীরউত্তমের জেলায় সব সময়ই ছিল বিএনপির আধিপত্য। তবে ২০০৮ সালে কয়েকটি আসনে হানা দেয় আওয়ামী লীগ। এবারও দুইদলই তাদের আধিপত্য ধরে রাখতে মরিয়া। ইতোমধ্যেই চাঙ্গা হয়ে উঠেছে বগুড়ার সাতটি আসনের ভোটের মাঠ।

বগুড়া-১
সারিয়াকান্দি-সোনাতলা উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে প্রার্থীর সংখ্যা ৪ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের আবদুল মান্নান নৌকা, বিএনপির কাজী রফিকুল ইসলাম ধানের শীষ, ইসলামী আন্দোলনের মোস্তফা কামাল পাশা হাতপাখা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তবিবর রহমান মন্ডল কলার ছড়ি প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আসনটিতে আধিপত্য ছিল বিএনপির। তবে এই আসনটিতে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টিও জয় লাভ করেছে একাধিকবার। ১৯৭৩ সালের প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মফিজ আলী চৌধুরী, ১৯৭৯ সালে বিএনপির মো. এ আলিম, ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ আবদুল মোমিন মণ্ডল, ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে বিএনপির, ২০০১ সালে বিএনপির কাজী রফিকুল ইসলাম এবং ২০০৮ ও ১৪ সালে আওয়ামী লীগের আব্দুল মান্নান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হোন।

বগুড়া-২
শিবগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে এবার প্রার্থী নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না ধানের শীষ, জাতীয় পার্টির শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের মুফতি জামাল উদ্দিন জুয়েল হাতপাখা ও মুসলিম লীগের শফিকুল ইসলাম হারিকেন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

১৯৭৩ সালে প্রথম সংসদ নির্বাচন আওয়ামী লীগের কাসিম উদ্দিন আহমেদ জয় লাভ করেন। বিএনপি প্রতিষ্ঠা হওয়া পর ১৯৭৯ সালে দলটির মো. আবুল হাসানত চৌধুরী জয়লাভ করেন। এরপর এরশাদের আমলে ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টি মো. জাফফর হোসেন, ১৯৮৮ সালে সৈয়দ মাস্কুল আলম চৌধুরী জয়ী হোন। ৯০ এর রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পর আসনটি দখলে নেয় জামায়াতে ইসলামী, ১৯৯১ সালে জামায়াতের শাহাদুজ্জামান, ১৯৯৬ সালে বিএনপির এ কে এম হাফিজুর রহমান, ২০০১ সালে বিএনপির রেজাউল বারী ডিনা,  ২০০৮ সালের বিএনপির এ কে এম হাফিজুর রহমান জয়ী হোন। তবে ২০১৪ নির্বাচিত হোন জাতীয় পার্টির শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ।

বগুড়া-৩
আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিএনপির মাছুদা মোমিন ধানের শীষ,  জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম তালুকদার লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের শাহজাহান আলী তালুকদার হাতপাখা, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির লিয়াকত আলী কোদাল, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের আবদুল কাদের জিলানী টেলিভিশন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মোটরগাড়ি, আফজাল হোসেন আপেল এবং আবদুল মজিদ ডাব প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আসনটিতে ১৯৭৩ সালে আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ হাসান আলী তালুকদার, ১৯৭৯ সালে বিএনপির আব্দুল মজিদ তালুকদার, ১৯৮৬ সালে জেএসডি (এস) এ.টি.এম. শাহজাহান, ১৯৮৮ সালে জাতীয় পার্টির এবিএম শাহজাহান, ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে বিএনপির আব্দুল মজিদ তালুকদার, ২০০১ ও ২০০৮ সালে আব্দুল মোমেন তালুকদার এবং ২০১৪ সালে সাংসদ হোন জাতীয় পার্টির নূরুল ইসলাম তালুকদার।

বগুড়া-৪
কাহালু-নন্দীগ্রাম উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে বিএনপির মোশাররফ হোসেন ধানের শীষ, মহাজোটের প্রার্থী জাসদের রেজাউল করিম তানসেন নৌকা, ইসলামী আন্দোলনের ইদ্রিস আলী হাতপাখা, তরিকত ফেডারেশনের কাজী এমএ কাশেম ফুলের মালা, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আয়ুব আলী আম ও বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের জীবন রহমান টেলিভিশন প্রতীকে লড়ছেন। এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলমের প্রার্থিতা বৈধ হলেও এখনও প্রতীক বরাদ্দ পাননি।

১৯৭৩ সালে আওয়ামী লীগের মোজাফ্ফর হোসেন, ১৯৭৯ সালে বিএনপির একেএম মতিয়ার রহমান প্রামাণিক, ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির মামদুদুর রহমান চৌধুরী, ১৯৯১ সালে বিএনপির আজিজুল হক মোল্লা, ১৯৯৬ সালে বিএনপির জিয়াউল হক মোল্লা, ২০০৮ সালে বিএনপির জেট. আই. এম. মোস্তফা আলী এবং  ২০১৪ সালে জাসদের এ কে এম রেজাউল করিম তানসেন নির্বাচিত হোন।

বগুড়া-৫
শেরপুর-ধুনট উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান নৌকা, বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ ধানের শীষ, জাতীয় পার্টির তাজ মোহাম্মদ শেখ লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের মীর মাহমুদুর রহমান হাতপাখা, ইসলামী ঐক্যজোটের নজরুল ইসলাম মিনার, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির রঞ্জন কুমার দে কোদাল, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সন্তোষ কুমার পাল কাস্তে ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুর রউফ মণ্ডল জন মাথাল প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আসনটিতে ১৯৭৩ সালের প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মোস্তাফিজুর রহমান পটল, ১৯৭৯ সালে বিএনপির মো. সিরাজুল আলম তালুকদার, ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির মো. শাহজাহান আলী তালুকদার, ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে বিএনপির গোলাম মাওলা সিরাজ এবং ২০০৮ ও ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান হাবিব নির্বাচিত হোন।

বগুড়া-৬ 
সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এখনও কারাবন্দি এই সাবেক প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচন নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। ফলে এই আসনে বিএনপির প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের আ ন ম মামুনুর রশীদ হাতপাখা, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির আমিনুল ফরিদ কাস্তে, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের জীবন রহমান টেলিভিশন, জাকের পার্টির ফয়সাল বিন শফিক গোলাপ ফুল ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির আমিনুর রহমান টিপু কুঁড়েঘর প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

১৯৭৩ সালে প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের এস এম সিরাজুল ইসলাম সুরজ ১৯৭৯ সালে বিএনপির ওয়াজেদ হোসেন তরফদার, ১৯৮৬ সালে জামায়াতের মো. আবদুর রহমান ফকির, ১৯৮৮ সালে সাইফুর রহমান ভান্ডারী নির্বাচিত হোন। ৯০ এর রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পর এই আসনে  বিএনপির ১৯৯১ সালে মজিবর রহমান ১৯৯৬, ২০০১ এবং ২০০৮ সালে নির্বাচিত হোন বেগম খালেদা জিয়া। আর ২০১৪ সালে জয়ী হোন জাতীয় পার্টির নূরুল ইসলাম ওমর।

বগুড়া-৭ 
গাবতলী-শাজাহানপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এখনও কারাবন্দি এই সাবেক প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচন নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। ফলে এই আসনে বিএনপির প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোরশেদ মিল্টন। এছাড়া জাতীয় পার্টির আলতাফ আলী লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের শফিকুল ইসলাম হাতপাখা, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের শহীদুল ইসলাম মই, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ফজলুল হক আম ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির মোন্তেজার রহমান কুঁড়েঘর প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন।

১৯৭৩ সালের প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আমানউল্লাহ খান, ১৯৭৯ সালে বিএনপির হাবিবুর রহমান, ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির আমিনুল ইসলাম সরকার, ১৯৯১, ৯৬, ২০০১ ও ০৮ সালে বেগম খালেদা জিয়া নির্বাচিত হোন। ২০১৪ সালে জাতীয় পার্টির আলতাফ আলী সাংসদ হোন।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ 

breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি